২৪ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শিরোপা জয়ে নেইমারকে বরণ পিএসজির

  • বিশ্বকাপ জয়ী এমবাপের দুরন্ত হ্যাটট্রিক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ উৎসবটা হতে পারতো আগেই। টানা তিন ম্যাচে পয়েন্ট খুইয়ে অপেক্ষা বাড়ায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন (পিএসজি)। এখন অনেকেই মনে করতে পারেন ইচ্ছে করেই হয়তো এই কালক্ষেপণ করেছে প্যারিসের পরাশক্তিরা।

তা না হলে সুপারস্টার নেইমারকে বরণ করে নেয়া যে পানসে হয়ে যেত!! হ্যাঁ, দীর্ঘ তিন মাসের চোট কাটিয়ে ময়দানী লড়াইয়ে ফিরেছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার। তার ফেরার ম্যাচেই রবিবার রাতে টানা দ্বিতীয়বার ফরাসী লীগ ওয়ানের শিরোপা জিতে নিয়েছে পিএসজি। ঘরের মাঠ প্যারিসের পার্ক দ্য প্রিন্সেস স্টেডিয়ামে অতিথি মোনাকোকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে বর্তমান বিশ্বকাপ জয়ী দেশের সেরা ক্লাবটি। নেইমার ফেরায় উৎসবের মধ্যমণি হলেও সব আলো কেড়ে নিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপে। পিএসজির জয়ে একাই তিন গোল অর্থাৎ হ্যাটট্রিক করেন ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী এই টিনএজার।

চ্যাম্পিয়ন হতে পিএসজির দরকার ছিল মাত্র ১ পয়েন্ট। কিন্তু তারা মাঠে নামার আগেই দিনের অন্য ম্যাচে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিলে টুলজের সঙ্গে ড্র করায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুখবার্তা নিয়েই মাঠে নামে পিএসজি। আর তাদের একাই জিতিয়েছেন এমবাপে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে নেইমার নামার আগেই ম্যাচ নিজেদের কাছে নিয়ে নিয়েছিল চ্যম্পিয়নরা। নেইমার নামার পর এমবাপে ৫৫ মিনিটে পূরণ করেন হ্যাটট্রিক। এর আগে তিনি গোল দু’টি করেন ম্যাচের ১৫ ও ৩৮ মিনিটে। ৮০ মিনিটে মোনাকোর সান্ত¡নাসূচক গোল আসে আলেকসান্দার গোলোভিনের পা থেকে। এবার লীগে ৩০ গোল হয়ে গেছে এমবাপের। ১৯৮৯-৯০ মৌসুমের পর এই প্রথম কোন ফরাসী ফুটবলার লীগ ওয়ানে ৩০ গোল করার রেকর্ড গড়েছেন। ৩৩ ম্যাচে ২৭ জয় ও ৩ ড্রয়ে অষ্টমবারের মতো লীগ চ্যাম্পিয়ন হওয়া পিএসজির পয়েন্ট ৮৪। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লিলের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান ১৯।

নেইমার মাঠ থেকে ছিটকে পড়েছিলেন সেই জানুয়ারিতে। ফরাসী কাপে স্ট্রাসবার্গের বিপক্ষে জিতেও হারাতে হয়েছিল তাকে। যে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিততে দু’হাতে টাকা ছড়িয়েছেন নাসির আল খেলাফি, ঠিক তার আগেই চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন নেইমার। যত দিনে মাঠে ফিরেছেন তত দিনে সে স্বপ্ন আর বেঁচে নেই। নেইমারকে ছাড়া নকআউট পর্বই পেরোতে পারেনি তারা। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে প্রথম লেগে ২-০তে এগিয়ে থেকেও নিশ্চিত করতে পারেনি পরের পর্ব। নিজেদের মাটিতে ৩-১ গোলে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ স্বপ্ন বিসর্জন দিয়েছে। শুধু তাই না, লীগ ওয়ানেও শিরোপা হাতছোঁয়া দূরত্বে রেখে থমকে ছিল পিএসজি। মাত্র দুই পয়েন্টের অপেক্ষা গত তিন ম্যাচ ধরে। অথচ তা অর্জন করতেই হাসফাঁস অবস্থা তাদের। স্ট্রাসবার্গের বিপক্ষে ড্র করলেও লজ্জাজনকভাবে হারতে হয় লিলে ও নান্টেসের বিপক্ষে। পিএসজি সেই জয়ের দেখা পেয়েছে নেইমার ফেরার ম্যাচে।

শিরোপা জয়ের পর পিএসজি কোচ টমাস টাচেল জুভেন্টাসের দৃষ্টান্ত তুলে ধরেন। টানা আটবারের সিরি’এ লীগের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস ১৯৯৬ সালের পর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পাঁচবার ফাইনালে উঠলেও কখনও শিরোপা জিততে পারেনি। বিষয়টি স্মরণ করিয়ে দিয়ে টাচেল বলেন, চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ক্লাবের একটি বড় লক্ষ্য। এমনকি জুভেন্টাস পর্যন্ত এরজন্য এত দিন ধরে অপেক্ষা করছে। এবার পিএসজির লক্ষ্য ফরাসী কাপের শিরোপা জয় করা। আগামী শনিবার কাপের ফাইনালে রেনেসেঁর মুখোমুখি হবে পিএসজি। ওই লড়াইয়ের আগে আত্মবিশ্বাসী এমবাপে বলেন, আমাদের আরও একটা শিরোপা জয় করার আছে। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে আমরা আরও বেশি প্রত্যাশা করেছিলাম ঠিক, তবে আমাদের অবশ্যই মনোযোগ ধরে রাখতে হবে।