২৫ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টাইগারদের অভিজ্ঞতায় রমিজের বাজি

  • বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ রমিজ রাজার মুখে বাংলাদেশের প্রশংসা খুব একটা শোনা যায় না। অতীতে অনেকবার টাইগার ক্রিকেট নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করে আলোচনায় এসেছেন সাবেক পাকিস্তান অধিনায়ক। ধারাভাষ্যের পরিচিত মুখ রমিজ এবার বিশ্বকাপের বাংলাদেশকে নিয়ে বেশ ইতিবাচক। সেটি মাশরাফি বিন মর্তুজা, মুশফিকুর রহীম, তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদদের অভিজ্ঞতার জন্য। ৩০ মে ইংল্যান্ডে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপের বাংলাদেশকে শক্ত প্রতিপক্ষ এবং অন্যতম ‘ডাকহর্স’ বলে উল্লেখ করেন তিনি। বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে, বিশেষ করে এশিয়া কাপে ধারাবাহিক উন্নতি টাইগারদের বড় একটা ট্রফির দিকে নিয়ে যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেছেন ৫৬ বছর বয়সী রমিজ। তবে তাসকিন আহমেদের মতো গতিময় বোলারের অভাবে বোলিংয়ে বাংলাদেশ কিছুটা পিছিয়ে থাকবে বলেও মনে করেন তিনি।

ইউটিউবের এক ভিডিও চ্যানেলে নিয়মিত বিভিন্ন দল নিয়ে বিশ্লেষণ করে আসছেন রমিজ। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,‘ এখন পর্যন্ত সাতটা টুর্নামেন্টের ফাইনাল ও সেমিফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ দল। এখনও এসব ম্যাচের একটিতেও জয় পায়নি। তবে ধীরে ধীরে শিরোপা জয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তিনি বলেন, বাংলাদেশ দলের ইতিবাচক দিক হচ্ছে এই দলের মূল সদস্যদের অভিজ্ঞতা। মাশরাফি, তামিম, সাকিব, মুশফিকুর রহীম। এরা অনেক বছর ধরে এক সঙ্গে খেলছে। দারুণ পারফর্মেন্স করে আসছে, দলকে বিপদমুক্ত করে আসছে এবং ম্যাচও জেতাচ্ছে। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড বিশ্লেষণে রমিজ মাশরাফির কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন, অধিনায়ক মাশরাফির নেতৃত্বে বাংলাদেশ দল দুইবার এশিয়া কাপ ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে। বিশ্বকাপ ও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মতো আইসিসি আসরের কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালে খেলেছে বাংলাদেশ। এটা চাট্টিখানি কথা নয়।

তিনি আরও যোগ করেন, মাশরাফি অসাধারণ একজন অধিনায়ক। কারণ সে ঠা া মাথায় নেতৃত্ব দেয়, কঠিন সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়। আমার মনে হয় বাংলাদেশ দলে প্রতিভা রয়েছে। মুশফিক দুর্দান্ত একজন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান, দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে সে ভিত গড়ে দেয় এবং কঠিন পরিস্থিতিতে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয় ব্যাটিংয়ের সময়। নির্ভয়ে থাকে, জুটি গড়ার চেষ্টা করে, দারুণ উইকেটরক্ষক সে। উইকেটরক্ষক হওয়ার দরুন সে অধিনায়ককে ফিল্ডিং সাজাতেও সাহায্য করে। বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব প্রসঙ্গে তার মূল্যায়ন, সাকিব আছে বলে অন্যান্য দলের তুলনায় এক ধাপ এগিয়ে থাকবে টাইগাররা। আমরা জানি সে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। বিশ্বের বিভিন্ন লীগে খেলার অভিজ্ঞতা আছে তার। কঠিন সময় এবং গুরুত্বপূর্ণ সময়ে সে অনেক সাহায্য করবে বাংলাদেশ দলকে। এই দলে রয়েছে বিশ্বমানের ওপেনার তামিম ইকবাল। ইংল্যান্ডে তার অভিজ্ঞতা অনেক। কাউন্টি ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতও রয়েছে তার।

তামিমকে নিয়ে তিনি আরও বলেন, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি টেস্ট শতকও রয়েছে তামিমের। উইজডেনের বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসেবে তার নাম তালিকায় রাখা হয়েছে। বিপিএলের ফাইনালে অসাধারণ এক ইনিংস খেলেছে সে, ১২টি ছক্কা মেরেছিল, দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিল। আপনার কাছে এমন বিশ্বমানের ওপেনার থাকলে চাপ অনেকটাই কমে যায়।

নির্বাচিত সংবাদ