২০ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আইপিএলে টার্নারের লজ্জার রেকর্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যাস্টন টার্নারের কথা নিশ্চয়ই মনে আছে। গত মাসেই মোহালিতে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নেমে ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছিলেন। ভারতের বিপক্ষে মাত্র ৪৩ বলে অপরাজিত ৮৩ রান করে অস্ট্রেলিয়াকে অবিশ্বাস্য এক জয় এনে দিয়েছিলেন। এরপর গ্রেট শেন ওয়ার্ন তো তার বিশ্বকাপ দলেও ২৫ বছর বয়সীকে জায়গা করে দিয়েছিলেন। যদিও শেষ পর্যন্ত সুযোগ হয়নি। সেই টার্নার এবার এমন এক রেকর্ড গড়লেন পারতপক্ষে কোন ক্রিকেটারই যেটি চাইবেন না। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) অভিষেক থেকে টানা তিন ম্যাচে ০ (শূন্য) রানে আউট হয়েছেন। বিগ ব্যাশ এবং ভারত ম্যাচের জোড়া ‘ডাক (০)’ নিয়ে আইপিএলে পা রাখা টার্নার টানা পাঁচ টি২০তে শূন্য হাতে সাজ ঘরে ফিরলেন। ছোট্ট ফরমেটের ক্রিকেটে যা বিশ্বরেকর্ড। পরশু জয়পুরে দিল্লী ক্যাপিটালসের বিপক্ষে প্রথম বলেই ইশান্ত শর্মার শিকারে পরিণত হন টার্নার।

আইপিএলে টানা তিন ইনিংসে শূন্য (০) রানে আউট হওয়া ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান টার্নার। তার আগে এই অভিজ্ঞতা হয়েছিল অশোক দিন্দা, রাহুল শর্মা, গৌতম গাম্ভীর, পবন নেগি ও শার্দুল ঠাকুরের। সর্বোপরি টি২০ ইতিহাসে টানা চার ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়ার রেকর্ড আছে মোট পাঁচজনের। অর্থাৎ টানা পাঁচ ‘ডাক’ এ নতুন রেকর্ডটা টার্নার গড়েই ফেললেন। ১৬ এপ্রিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে, ২০ এপ্রিল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে এবং ২২ এপ্রিল দিল্লী ক্যাপিটালসের বিপক্ষে নিজের খেলা প্রথম বলেই আউট হন টার্নার। এর আগে অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টি২০ আসর বিগব্যাশে এ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের বিপক্ষে শূন্য রানে আউট হন তিনি। এরপর অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ভারতের বিপক্ষে টি২০ ম্যাচেও রানের খাতা খোলার আগেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন। পরের ম্যাচেও দলে ছিলেন, তবে ব্যাটিংয়ে নামার প্রয়োজন হয়নি।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার সময়ের সম্ভাবনাময় ব্যাটসম্যানদের একজন বলা হয় টার্নারকে। অসিদের হয়ে এরই মধ্যে তিনটি ওয়ানডে ও পাঁচটি টি২০ খেলেছেন পার্থে জন্ম নেয়া ২৬ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান। একটা বিশ্ব রেকর্ড তো অনেকই চান। তবে টার্নার যে রেকর্ডটা গড়লেন তা নিশ্চিতভাবেই তিনি চাননি।