২৪ এপ্রিল ২০১৯

ওসাকার নতুন মিশন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ২০১৭ সালে প্রথমবারের মতো স্টুটগার্ট ওপেনে খেলেছিলেন নাওমি ওসাকা। কিন্তু দুর্ভাগ্য তার। সেবার প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিয়েছিলেন জাপানের তরুণ প্রতিভাবান এই খেলোয়াড়। এবার দ্বিতীয়বারের মতো জার্মানির এই টুর্নামেন্টে অংশ নিচ্ছেন তিনি। তবে এবারের গল্পটা একেবারেই ভিন্ন। কেননা বর্তমানে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে অবস্থান করছেন ওসাকা। সেই সঙ্গে সর্বশেষ দুটি মেজর টুর্নামেন্টেরও চ্যাম্পিয়ন তিনি। যে কারণেই এবার সবার নজরে থাকছেন নাওমি ওসাকা।

গত মৌসুমেই বিশ্ব টেনিসের পাদপ্রদীপের আলোয় উঠে আসেন ওসাকা। সেপ্টেম্বরে ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতে গোটা টেনিস দুনিয়াকেই যে চমকে দেন তিনি। তাও আবার টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামসকে পরাজিত করে। এরপর নতুন মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনেও বাজিমাত করেন তিনি। ফাইনালে পেত্রা কেভিতোভাকে পরাজিত করে টানা দুই গ্র্যান্ডস্লামের শিরোপা উঁচিয়ে ধরেন নাওমি ওসাকা। সেই সঙ্গে গড়েন নতুন ইতিহাস। জাপানের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে টানা দুটি গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের নজির গড়েন তিনি। পাশাপাশি এশিয়ার প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করেন ওসাকা। তবে ইউএস ওপেন ও অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা জয়ী ওসাকার পরের সময়টা কিন্তু মোটেও সুখকর নয়। বিশেষ করে সর্বশেষ তিনটি টুর্নামেন্টেই ভক্ত-অনুরাগীদের হতাশ করেছেন তিনি। দুবাই ইন্টারন্যাশনাল টেনিস টুর্নামেন্ট, ইন্ডিয়ান ওয়েলস এমনকি মিয়ামি ওপেনেও নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ হন ২১ বছরের এই প্রতিভাবান খেলোয়াড়। তবে ক্লে-কোর্টে কেমন করবেন ওসাকা? সেটা দেখার জন্য অনেকেই মরিয়া।

নাওমি ওসাকার জন্য এটা নিঃসন্দেহে চ্যালেঞ্জিং টুর্নামেন্ট। কেননা বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে থাকা ছয় খেলোয়াড়ই অংশ নিয়েছেন স্টুটগার্টে। তারা হলেন রোমানিয়ার শীর্ষ তারকা সিমোনা হ্যালেপ, চেক প্রজাতন্ত্রের পেত্রা কেভিতোভা, ক্যারোলিনা পিসকোভা, জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবার এবং হল্যান্ডের কিকি বার্টেন্স। গত মৌসুমে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জিতেছিলেন সিমোনা হ্যালেপ। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা এবার স্টুটগার্টে অংশ নিচ্ছেন দ্বিতীয় বাছাই হিসেবে। চেক প্রজাতন্ত্রের পেত্রা কেভিতোভাও এবার দুর্দান্ত ফর্মে। যদিওবা দুর্ভাগ্য তার। এ মৌসুমে বারবারই তীরে এসে তরী ডুবছে চেক প্রজাতন্ত্রের এই তারকা খেলোয়াড়ের। তারপরও আশা ছাড়ছেন না দুইবারের উইম্বলডন জয়ী পেত্রা কেভিতোভা। আর ক্যারোলিনা পিসকোভা তো স্টুটগার্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে এবার দুর্দান্ত গতিতে ছুটছেন এই চেক তারকা।

এদিকে স্টুটগার্ট টুর্নামেন্টে খেলার কথা ছিল মারিয়া শারাপোভা, স্লোয়ানে স্টিফেন্স এবং এলিনা সিতলিনারও। কিন্তু চোটের কারণে টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিতে বাধ্য হয়েছেন তারা।