২১ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিহত শিশু জায়ান চৌধুরীসহ অন্যান্যদের স্মরণে শোক সংসদে প্রস্তাব

নিহত শিশু জায়ান চৌধুরীসহ অন্যান্যদের স্মরণে শোক সংসদে প্রস্তাব

সংসদ রিপোর্টার ॥ শপথ না নেওয়ায় চলতি জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশনও বিএনপি থেকে নির্বাচিত ৬জন সংসদ সদস্য ছাড়াই শুরু হয়েছে। অধিবেশনের শুরুতে ভয়াবহ বোমা হামলায় শ্রীলংকায় নিহত শিশু জায়ান চৌধুরীসহ অন্যান্যদের স্মরণে শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে। তাদের আত্মার শান্তি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশনের শুরুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। ওই প্রস্তাবে সম্প্রতি শ্রীলংকায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ বোমা হামলায়, ঢাকার বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকান্ডে নিউজল্যান্ডের ক্রাইষ্টচার্চে দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায়, ইথিওপিয়ায় বিমান বিধ্বস্তে নিহতদের ঘটনায় শোক জানানো হয়। এখানে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে উল্লেখ করা হয়, শ্রীলংকায় নিহত আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নাতি জায়ান চৌধুরীর নাম।

এছাড়া শোক প্রস্তাবে অভিনেতা টেলি সামাদ, প্রধানমন্ত্রীর ফুফু হামিদা খানম বানু, পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীল, কবি আল মাহমুদ, সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেকসহ প্রয়াত আরো কয়েক জনের নাম উল্লেখ করা হয়।

এদিকে অধিবেশন শুরু হলেও অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যসুচী চূড়ান্ত হয়নি। বুধবার বিকেল ৪টায় সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে এবিষয়ে সিদ্ধান্ত হওয়া কথা থাকলে অনিবার্য কারণে বৈঠকটি স্থগিত করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওই বৈঠকে অধিবেশনের কার্যসূচি চূড়ান্ত করা হবে। অধিবেশনটি সর্বোচ্চ ৫দিন চলতে পারে বলে জানা গেছে।

এদিকে নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের পর কারচুপির অভিযোগ এনে নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়ে শপথ অনুষ্ঠান বর্জন করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নির্বাচিত ৬ জন সংসদ সদস্য। ফলে তাদের আসন ৬টি প্রথম অধিবেশনের মতো এবারও ফাঁকা আছে। আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে শপথ না নিলে ওই আসনগুলোতে পূননির্বাচন হবে।

শোক প্রকাশ ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুফু ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শেখ কবির হোসেনের বোন হামিদা খানম রানু এবং স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা সালেহ আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি পৃথক দু’টি শোক বার্তায় তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন। এছাড়া পৃথক বিবৃতিতে তাদের মৃত্যুত গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া ও প্রধান হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী।