২৪ এপ্রিল ২০১৯

মাদারীপুরে ১৪ কিমি সড়ক এখন মরণ ফাঁদ

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ২৪ এপ্রিল ॥ ইটেরপুল-ঘোষেরহাট সড়কের ১৪ কিলোমিটার সড়ক যানবাহন চলাচলে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। প্রতিদিনই ঘটছে অসংখ্য দুর্ঘটনা। দ্রুত সড়কটি সংস্কার করা না হলে সামনের বর্ষা মৌসুম ও ঈদে চরম দুর্ভোগে পড়বে সাধারণ মানুষ।

জানা গেছে, ইটেরপুল-ঘোষেরহাট সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন সদর ও কালকিনি উপজেলার ১৪ ইউনিয়নের প্রায় ১০ হাজার মানুষ যাতায়াত করেন।

এই সড়ক দিয়ে শহর থেকে ঘোষেরহাট যেতে সময় লাগার কথা ৩০ মিনিট। কিন্তু ১৪ কিলোমিটার পথ যেতে এখন সময় লাগছে দেড়-দুই ঘণ্টা। গত দুই বছরে সড়কটি অস্থায়ীভাবে সংস্কারের নামে ব্যয় করা হয়েছে এক কোটি টাকা। অথচ সড়কটির অধিকাংশ স্থানে পিচ উঠে সৃষ্টি হয়েছে খানাখন্দ। সড়কে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় প্রায়ই যানবাহন বিকল হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি ঘটছে দুর্ঘটনা। এলাকাবাসী ও স্থানীয়রা সড়ক সংস্কারের সময় নি¤œমানের কাজের অভিযোগ তুললেও বিষয়টি আমলে নেয়নি কর্তৃপক্ষ। এতে ক্ষুব্ধ যাত্রী, চালক ও পথচারীরা।

এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াতকারী আবু আলম মুন্সি বলেন, ‘প্রায়ই দেখি সড়ক মেরামত করে। কাজ ঠিকমতো না হওয়ায় সড়কে আবারও একই চিত্র দেখা যায়। যার ফলে ভোগান্তি পোহাতে হয় আমাদের। এর প্রতিকার হওয়া দরকার।’

এলাকাবাসী আল-আমিন ব্যাপারী বলেন, জেলার সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম জানালেন, পুরো সড়কটি মেরামতের কাজ শীঘ্রই শুরু হবে। এতে কমবে যাত্রী ও চালকদের ভোগান্তি। মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ ওয়াহিদুল ইসলাম জানান, নি¤œমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করা হয় এমন অভিযোগ আমাদের কাছে এসেছে। বিষয়টি আমরা কঠোরভাবে দেখব, পরবর্তীতে কেউ যাতে কাজে ফাঁকি দিতে না পারে, সেই বিষয়ে সড়ক বিভাগকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’