২১ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাতদিনের মধ্যে মূল আসামি গ্রেফতার দাবি

  • মুক্তিযোদ্ধা হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ নিজের পিতা হত্যার বিচার করা হলেও একজন মুক্তিযোদ্ধার হত্যার বিচার করা হচ্ছে না কেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রেখে বক্তারা সাতদিনের মধ্যে মূল হত্যাকারীদের গ্রেফতার করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছেন।

বুধবার দুপুরে ঈশ্বরদী মাহবুব আহমেদ খান স্মৃতি মঞ্চে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পক্ষে আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধা গণঅনশনে বক্তারা এসব কথা বলেন। মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান বিশ্বাস, পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, নায়েব আলী বিশ্বাস, গোলাম মোস্তফা চান্না, ইসাহক আলী মালিথা, জহুরুল ইসলাম, আতম নাসিম, আব্দুল খালেক, সাইফুজ্জামান পিন্টু, রাজা আলী, সিরাজ উদ্দীন বিশ্বাস, রফিকুল ইসলাম ও নিহত মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিমের ছেলে তন্ময় বক্তব্য দেন। পরে শরবত পান করিয়ে অনশন ভঙ্গ করানো হয়। গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাতে রুপপুরের নিজ বাড়িতে গুলি করে সেলিমকে হত্যা করা হয়।

হুইপ আতিককে অব্যাহতির দাবি

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর, ২৪ এপ্রিল ॥ শেরপুরে জাতীয় নির্বাচনে নৌকার পক্ষে একাট্টা হয়ে কাজ করার পরও অপছন্দের দলীয় নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলাসহ নানা অভিযোগে এবার স্থানীয় সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আতিউর রহমান আতিককে সংসদের হুইপ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব থেকে অব্যাহতির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার বিকেলে শহরের খরমপুর খাদ্যগুদাম মোড় এলাকায় জেলা কৃষক লীগের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওই দাবি জানান হুইপ আতিকবিরোধী বলয়ের প্রধান ২ নেতা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর রুমান ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ছানুয়ার হোসেন ছানু। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ১৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় শহরে কৃষক লীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচী শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হলেও মিছিলকালে হুইপ আতিউর রহমান আতিকের বিরুদ্ধে অশ্লীল স্লোগানসহ নাশকতার উদ্দেশে ভাংচুরের তথাকথিত অভিযোগ তুলে ২৯ নেতা-কর্মীকে স্ব-নামে ও অজ্ঞাতনামা ২০/৩০ জনকে আসামি করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দেয়া হয়েছে।