২৪ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নৌঘাট দখল নিয়ে উত্তেজনা ॥ পারাপার বন্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া, ২৪ এপ্রিল ॥ কর্ণফুলীতে একটি নৌঘাট দখল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় উত্তেজনা চলছে। যে কোন মুহূর্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। কর্ণফুলী উপজেলার শিকলবাহা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের জিন্নাত আলী চৌধুরী নৌঘাটটি দখল করতে একটি মহল পাঁয়তারা শুরু করছে। বুধবার সকালে ও মঙ্গলবার বিকেলে দুই দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। কর্ণফুলী নদীর পশ্চিমপাড়ে শিকলবাহা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ি। পূর্বপাড়ে ১নং ওয়ার্ডে রয়েছে জিন্নাত আলী চৌধুরী ঘাট এলাকার এখলাছ চৌধুরী ও সিরাজসহ স্থানীয়দের বসতি।

জানা গেছে, কর্ণফুলী নদীর শিকলবাহা এলাকায় রয়েছে জিন্নাত আলী নৌঘাটটি। দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে নৌঘাটটি স্থানীয়রা দেখাশোনা করতেন। শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদ নতুন বছর টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নৌঘাটটি পেয়েছেন চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারী মামুনুর রশিদ বাবু। প্রথমদিন মঙ্গলবার নৌঘাট দিয়ে চলাচল শুরু করলে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে নৌঘাটটি দিয়ে পারাপার বন্ধ রয়েছে। ফলে ওই এলাকার লোকজন খুব কষ্টের মধ্যে রয়েছেন। শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানিয়েছেন, টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জিন্নাত আলী চৌধুরী ঘাটটি মামুনুর রশিদ বাবু নতুন ইজারাদার পেলেও গুটিকয়েক ব্যক্তির বিরোধিতার কারণে নৌ চলাচল বন্ধ রয়েছে। যারা বিরোধিতা করছে তারা জোরপূর্বক ঘাটটি দখল করে বিনা টেন্ডারে রাখার চেষ্টা করছে।