২৫ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তুরাগে একদিনেই ১১৫ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

হাসান ইমাম সাগর ॥ তুরাগে একদিনেই ১১৫ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডাব্লিটিএ)। নিলামের জটিলতা না থাকায় তুমুল বেগে চালানো হয় উচ্ছেদ অভিযান। বিআইডাব্লিটিএর দুইটি এক্সকাভেটর বিরতিহীন অভিযানে অংশ নেয়। বৃহস্পতিবার ঢাকা-টঙ্গী সংযোগকারী রেল সেতুর পূর্বপাশে তুরাগ নদের উভয় পাড়ে প্রায় এক কিলোমিটার এলাকায় এই অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানে সার্বিক নির্দেশনা দেন বিআইডাব্লিটিএর যুগ্ম পরিচালক একেএম আরিফ উদ্দীন। নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। এ সময় পালমাল গ্রুপের আজমেরি কম্পোজিট নিট লিমিটেড নামে একটি ফ্যাক্টরিসহ পাঁচ তলা আবাসিক ভবন একটি, চারতলা ভবন তিনটি, সাতটি তিনতলা ভবন, ১৫ দোতলা ভবন ও ২০টি একতলা ভবন উচ্ছেদ করা হয়। এছাড়া ৩১ আধা পাকা ভবন, ১০ টিনশেড, ১৬ টিনের ঘর এবং ২ হাজার রানিং ফুট ১২ বাউন্ডারি ওয়াল ভেঙ্গেচুরে গুঁড়িয়ে দেয় বিআইডাব্লিটিএ। সরেজমিনে দেখা যায়, টঙ্গীর মিরাসপাড়া ও ঢাকার উত্তর খানের কোটবাড়ি, ফায়দাবাদ ও রাজাবাড়ি এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান চলছে। মুহূর্তের মধ্যে গুঁড়িয়ে দেয়া হচ্ছে বহুতল ভবন। এ সমস্ত ভবন নদের পাড়ে অবৈধভাবে নদের জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছে। নদের মাঝে দুইটি পন্টুনের উপর দুইটি এক্সকাভেটর দানবের মতো ভেঙ্গে চলেছে ভবনগুলো। পাশে শত শত উৎসুক জনতার ভিড়। দুর্ঘটনা এড়াতে বার বার মাইকিং করে সতর্ক করছে বিআইডাব্লিটিএর সহকারী পরিচালক নূর হোসেন ও স্বেচ্ছাসেবক কিছু কর্মী। তবে অভিযানের এক পর্যায়ে আব্বাস জামে মসজিদ নামে একটি মসজিদ দেখা যায় নদের পাড়ে। সেটিও অবৈধ জায়গা দখল করে গড়ে উঠেছে।