২৭ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় বাংলার বাঘিনীরা

জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় বাংলার বাঘিনীরা
  • গ্রুপসেরা হওয়ার লড়াইয়ে আজ স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি কিরগিজস্তান

রুমেল খান ॥ একদিকে ব-দ্বীপ এবং দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতের দেশ। অন্যদিকে মসজিদের বাতিঘরের দেশ। একদিকে দক্ষিণ এশিয়ার বাংলাদেশ। অন্যদিকে মধ্য এশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দেশ কিরগিজস্তান। দুই দেশের ভাষা, সংস্কৃতি, খাদ্যাভ্যাস ... কোন কিছুতেই মিল নেই। তবে তিনটি মিল আছে। দুটি দেশই মুসলিম অধ্যুষিত দেশ। আরেকটি মিল আছে। সেটা ফুটবলে। দুই দেশই ‘বঙ্গমাতা অনুর্ধ-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ’ ফুটবল টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে চায়। দুই দেশই আছে একই গ্রুপে (‘বি’)। সে লক্ষ্যে উভয় দেশই চায় অপরকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে। সে জন্য আজ শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় তারা মুখোমুখি হচ্ছে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে।

এর আগেও কিরগিজদের সঙ্গে খেলেছে বাংলার বাঘিনীরা। তবে সেটা অনুর্ধ-১৬ পর্যায়ে (‘এএফসি অনুর্ধ-১৬ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপ বাছাইপর্ব’ আসরের ‘সি’ গ্রুপে) ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট এই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামেই অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচে প্রতিপক্ষকে স্রেফ ‘কচুকাটা’ করেছিল লাল-সবুজরা। জিতেছিল ১০-০ গোলে। ওই ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছিলেন দলের অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী সরকার। এছাড়া জোড়া গোল করেছিলেন আনুচিং মগিনি এবং শামসুন্নাহার সিনিয়র। ১টি করে গোল করেছিলেন মারজিয়া আক্তার, নার্গিস খাতুন এবং মারিয়া মান্দা। ওই ম্যাচের আনুচিং বাদে বাকি গোলদাতারা আজকের ম্যাচে বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৯ দলের হয়ে খেলবেন।

বঙ্গমাতা অনুর্ধ-১৯ ফুটবলের চলতি আসরে প্রথম ম্যাচ জিতে বাংলাদেশ-কিরগিজস্তান উভয় দেশই আগেই শেষ চারে নাম লেখানো নিশ্চিত করে ফেলে। তাই দু’দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত আজকের লড়াইটি হবে মূলত গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হবার। ‘বি’ গ্রুপে কিরগিজস্তান পয়েন্ট টেবিলে আছে দ্বিতীয় স্থানে। স্বাগতিক বাংলাদেশ দলেরও সমান পয়েন্ট। তবে গোল গড়ে এগিয়ে থাকায় (+২) তারাই আছে এক নম্বরে, আর কিরগিজরা আছে তাদের নিচে (+১)। বাংলাদেশ তাদের প্রথম ম্যাচে ২-০ গোলে হারিয়েছিল মধ্যপ্রাচ্যের দেশ আমিরাতকে। একই দলকে কিরগিজস্তান হারিয়েছিল ২-১ গোলে। পয়েন্ট টেবিলে গোল গড়ে এগিয়ে স্বাগতিকরা। তাই ড্র করলেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলাদেশই। তবে দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন ড্র নয়, জিতেই চান গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে, গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেষ্টা করব। সেই লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামব। শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ দল জিতলেও খুব একটা ভাল খেলেনি। অনেক ভুল করেছে। সেগুলো নিয়ে মেয়েদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন ছোটন, ভুলগুলো নিয়ে গত তিনদিন আমরা কাজ করেছি। প্র্যাকটিক্যাল এবং থিউরি দুটিরই কাজ হয়েছে। আশা করছি ফিনিশিংটা এবার ভাল হবে। প্রতিপক্ষকে কোন্ দৃষ্টিতে দেখছেন? ফিজিক্যালি এবং টেকনিক্যালি কিরগিজরা ভাল। আমাদের মেয়েরাও ভাল। লড়াইটা হবে সেয়ানে সেয়ানে। আর আমরা জয়ের জন্য মাঠে নামব, আশাকরি জিতব।

দলের অধিনায়ক-মিডফিল্ডার মিশরাত জাহান মৌসুমী বলেন, গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া ছাড়া আমাদের আর কী পরিকল্পনা থাকতে পারে। আমাদের সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে গেছে। কিরগিজস্তান ভাল দল, তারা ভাল খেলেই আরব আমিরাতের বিপক্ষে জিতেছে। আমাদের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য।

বুধবার কিরগিজস্তান-আমিরাত ম্যাচটি স্টেডিয়ামে গিয়ে দেখার কথা ছিল বাংলাদেশ দলের। কিন্তু বেশি গরমের কারণে দল যায়নি। বাফুফে ভবনে বসে টিভিতেই খেলা দেখেছে তারা। মৌসুমী আরও যোগ করেন, কিরগিজ দলের সঙ্গে আমাদের পার্থক্য তেমন নেই। কোন দল কোন দিন ভাল খেলবে সেটা বলা যাবে না। তাই তাদেরকে হাল্কা করে দেখছি না।

দলের সহ-অধিনায়ক এবং ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার মারিয়া মান্দার অভিমত, ‘বিপক্ষ দলকে দুর্বল ভাবা যাবে না। তারাও তো এখানে এসেছে ভাল রেজাল্ট করার জন্য, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য। আমাদেরও লক্ষ্য আমরা চ্যাম্পিয়ন হব। আমরা এখানে বসে খেলা দেখে মনে হয়েছে তারা অনেক শক্তিশালী।

দলের ডিফেন্ডার আঁখি খাতুনের ভাষ্য, তারা ফিজিক্যাল এবং উচ্চতায় সবদিক দিয়ে ভাল। তাদের খেলা দেখার পর আমরা নিজেরা নিজেরা আলোচনা করেছি, কি রকম খেললে তাদের হারাতে পারব।

বাংলাদেশের গত ম্যাচের ম্যাচসেরা কৃষ্ণা রানী সরকারের অভিমত, ‘আসলে আমাদের প্রথম ম্যাচে আমাদের অনেক ভুল হয়েছে, গোল মিস করেছি। সেগুলো যাতে না হয় সে জন্য অনুশীলনে আমরা অনেক কাজ করেছি। কালকের ম্যাচে যেন সেই ভুলগুলো না হয় সেই চেষ্টা করব। তাদের হারানোর আত্মবিশ্বাস অবশ্যই আছে। কৃষ্ণা আরও যোগ করেন, প্রায় ১৫দিন চোটে ছিলাম। ইনজুরির কারণে সাফ খেলতে পারিনি। এজন্য মনের ভেতর একটা জেদ কাজ করেছিল যে সুযোগ পেলে কাজে লাগাব। প্রথম ম্যাচে সেটা করতে পেরেছি বলে ভাল লাগছে। এর আগে আমি লালকার্ড দেখেছিলাম এএফসি খেলায়। ওটার জন্য দুটো ম্যাচ খেলতে পারিনি। আর সাফে ছিলাম ইনজুরিতে। অনেক পিছিয়ে গিয়েছিলাম। ক্যারিয়ারে এই প্রথম আমি ম্যাচসেরা খেলোয়াড় হয়েছি। যে ৫০০ ডলার পেয়েছি সেটা রেখে দিয়েছি। আর বাবা-মা তো জানে। এখন দেখার বিষয়, আজকের ম্যাচে কিরগিজদের হারিয়ে গ্রুপসেরা হতে পারে কি না বাংলার বাঘিনীরা।