২৬ এপ্রিল ২০১৯

বগুড়ায় বিএনপি অফিসে তালা ঝুলিয়ে নেতা কর্মীদের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ বগুড়ায় বিএনপি কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার রাতে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে যুবদল স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের একটি গ্রুপের নেতাকর্মীরা। বিক্ষুব্ধ কর্মীরা দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে সেখানে বিক্ষোভ করে। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শাহ মেহেদী হাসান হিমু ও জেলা বিএনপি’র যুগ্ম সম্পাদক পরিমল চন্দ্র দাসকে দল থেকে অব্যাহতি দেয়ার খবরে ক্ষুব্ধ হয়ে তাদের কর্মী সমর্থকরা এই বিক্ষোভ করে। দলীয় সূত্র জানায়, দলের জেলা কমিটি পুনর্গঠনসহ সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনার জন্য কেন্দ্র থেকে বগুড়া জেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দকে ঢাকায় তলব করা হয়। জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক শাহাবুল আলম পিপলু জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনার সময় হঠাৎ করে এক ছাত্রদল নেতার নেতৃত্বে একটি গ্রপ বগুড়ার নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করেন। এর পর বগুড়ার নেতৃবৃন্দ ঢাকা থেকে ফেরার পথে সন্ধ্যায় খবর পান স্বেচ্ছাসেবক দল ও জেলা বিএনপির দুই নেতাকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এ খবর জানতে পেরে অব্যাহতি পাওয়া নেতাদের অনুসারী নেতাকর্মী সমর্থকরা জেলা কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ এবং বগুড়ার শেরপুর-ধুনট এলাকার সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে। রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত তারা বিক্ষোভ করে। এ ব্যাপরে জেলা বিএএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাদের পাওয়া যায়নি। তবে অব্যাহতি পাওয়া জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক পরিমল চন্দ্র জানান, ঢাকায় বগুড়া জেলা বিএনপি ও উপদেষ্টা কমিটির প্রায় ৯০ জনেরও বেশি নেতৃবৃন্দ গিয়েছিলেন। সেখানে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি গঠনের বিষয়ে আলোচনায় কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু ও রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন শওকত উপস্থিত ছিলেন। তিনি জানান, এ সময়ের সংস্কারপন্থী নেতা গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজ এক পেশে বক্তব্য রাখেন। এতে সেখানে উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি ও দুপক্ষের মধ্যে বাদানুবাদ হয়। একপর্যায়ে ছাত্রদলের এক নেতার নেতৃত্বাধীন গ্রুপ সেখানে প্রবেশ করে বগুড়ার নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করলে হৈচৈ ও ব্যাপক উত্তেজনাসহ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। পরে সেখানে কেন্দ্রীয় নেতা গয়েশ্বর রায় দু’পক্ষকে শান্ত করেন। বগুড়া জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল ও জেলা বিএনপি’র অব্যাহতি পাওয়া নেতৃবৃন্দের পক্ষে বলা হয়েছে ঢাকায় দলীয় কার্যালয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা ও তাদের আকস্মিক বহিষ্কারের পেছনে গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজের ইন্ধন রয়েছে। এ কারণে বগুড়ায় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করে।