২২ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দলিত জনগোষ্ঠীরা বাজেটের জন্য ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ চান

দলিত জনগোষ্ঠীরা  বাজেটের জন্য ২০০ কোটি টাকা  বরাদ্দ চান

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ২০১৯-২০ অর্থবছরের দলিত জনগোষ্ঠীর জন্য বাজেট বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে দলিত নারী ফোরাম। তাদের দাবি, আগামী বাজেটে যেন দলিতদের জন্য ন্যূনতম ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়।

আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানায় ফোরামটি।

এ সময় বক্তারা বলেন, ‘দলিত জনগোষ্ঠীর জন্য জাতীয় বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তা খাতে যে বরাদ্দ দেয়া হয়, তা বাংলাদেশের ৬৫ লাখ দলিত জনগোষ্ঠীর প্রয়োজনের তুলনায় নিতান্তই অপ্রতুল। দেশের অন্যতম বৃহৎ এ জনগোষ্ঠী যেভাবে সমাজের সর্বস্তরে অনেক বেশি পিছিয়ে রয়েছে, তাতে তাদের আর্থসামাজিক উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি পর্যাপ্ত পরিমাণে সুনির্দিষ্ট বাজেট বরাদ্দ। তাই আমাদের জাতীয় বাজেটে দলিত জনগোষ্ঠীর জন্য ন্যূনতম ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করতে হবে।

বাজেটে দলিতদের জন্য বরাদ্দ বাড়ছে উল্লেখ করে মানববন্ধনে বক্তারা জানান, সরকার ২০১৩-১৪ অর্থবছর থেকে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচীর আওতায় দলিত, হরিজন ও বেদে জনগোষ্ঠীদের জীবনমান উন্নয়নে বরাদ্দ প্রদান শুরু করে। ওই অর্থবছরে এ খাত বরাদ্দ ছিল ১২ কোটি ২৬ লাখ টাকা। এরপর ২০১৪-১৫ অর্থবছরে বরাদ্দ কমে দাঁড়ায় ৯ কোটি ২৩ লাখ টাকা। আবার ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বরাদ্দের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ১৮ কোটি টাকা। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল ২০ কোটি ৩০ লাখ, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ২৭ কোটি এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বরাদ্দ হয় ৫০ কোটি ৩ লাখ টাকা। বাজেটে ‘দলিত’ শব্দের পরিবর্তে ‘অনগ্রসর’ ব্যবহারের দাবিও জানানো হয় মানববন্ধনে।