২৭ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কল সেন্টারে ফোন করে সেবা পাবেন ডিপিডিসির গ্রাহক

  • আজ উদ্বোধন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এখন থেকে কলসেন্টারে ফোন করে সেবা পাবেন ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি) গ্রাহকরা। ইতোমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে চালু হওয়া এই সেবা আজ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। ডিপিডিসির কল সেন্টার ১৬১১৬ নাম্বারে ফোন করে দেখা গেছে ডিপিডিসি সেবা প্রদান শুরু করেছে। সব বিদ্যুত বিতরণ কোম্পানিকে আধুনিক কল সেন্টারের মাধ্যমে সেবা প্রদানের নির্দেশ দেয়া হয়। তবে বিদ্যুত বিভাগের এই নির্দেশনা প্রথম বাস্তবায়ন করছে ডিপিডিসি। ঢাকার অধিকাংশ গ্রাহক নতুন এই পদ্ধতিতে সেবা পাবেন।

ডিপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকাশ দেওয়ান জানতে চাইলে বলেন, গ্রাহক কলসেন্টারে ফোন করে তার কাস্টমার নাম্বার এবং বিদ্যুত অফিসের কোড বলবেন এটি না বলতে পরলে তিনি কলসেন্টার প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলে তার সমস্যাটি বুঝিয়ে বলবেন। কল সেন্টার প্রতিনিধি তাৎক্ষণিকভাবে সমস্যার সমাধান করতে পারলে করে দেবেন। নয় তো প্রতিনিধি গ্রাহকের সংশ্লিষ্ট এলাকার অফিসের সঙ্গে তার যোগাযোগ করিয়ে দেবেন। সংশ্লিষ্ট এলাকার অফিস গ্রাহকের সমস্যার সমাধান করবে।

বিদ্যুত বিতরণকারী কোম্পানির বিরুদ্ধে গ্রাহকের প্রথম অভিযোগ বিদ্যুত না থাকা। কোন কারণে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিদ্যুত চলে গেলে গ্রাহক প্রান্ত থেকে জানার চেষ্টা করা হয় কখন বিদ্যুত আসবে। কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট এলাকার অভিযোগকেন্দ্রগুলো টেলিফোনে অসহযোগিতা করে। আবার মোবাইল ফোনও রিসিভ করে না। এতে করে গ্রাহক অসন্তোষ বৃদ্ধি পায়। কল সেন্টারে এ ধরনের কোন সমস্যা নেই। ডিপিডিসির তরফ থেকে বলা হচ্ছে কল সেন্টারের কলটি রেকর্ড করা থাকবে। কোন কারণে গ্রাহক সেবা না পাওয়ার অভিযোগ করলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুযোগ থাকবে।

দেশে অনেক আগে থেকেই মোবাইল ফোন অপরারেটররা কল সেন্টার সেবা চালু করেছে। এর বাইরে বাংলাদেশ পুলিশ, মহিলা বিষয়ক অধিদফতর, কৃষি, স্বাস্থ্যসেবা নানা বিষয়ে কল সেন্টার রয়েছে। এই কল সেন্টারে ফোন করে গ্রাহক প্রয়োজনীয় সেবাও নিয়ে থাকেন। অনেক কল সেন্টার আবার টোল ফ্রি। অর্থাৎ গ্রাহককে কোন অর্থ প্রদান করতে হয় না। কিন্তু ডিপিডিসির কল সেন্টারে ফোন করতে হলে যে কোন টেলিফোন এবং মোবাইল অপারেটরকে নির্দিষ্ট হারে অর্থ প্রদান করতে হবে।

ডিপিডিসির নির্বাহী পরিচালক রমিজ উদ্দিন সরকার এ বিষয়ে বলেন, গ্রাহক সেবার মান উন্নত করতে ডিপিডিসি এই পদক্ষেপ নিয়েছে। এতে করে ডিপিডিসির আগে ৩৬ এলাকায় ৩৬টি অভিযোগ কেন্দ্রর নাম্বার ছিল। এখন আর তা থাকছে না। গ্রাহক সরাসারি কল সেন্টারে ফোন করবেন। রাজধানীর হাতিরপুলে কল সেন্টারটি স্থাপন করা হয়েছে। যার মূল সার্ভার থাকবে গুলশানে। গ্রাহকের মূল সমস্যাই বিদ্যুত না থাকা। কোথাও বিদ্যুত চলে গেলে সঙ্গে সঙ্গে গ্রাহক কল সেন্টারে অভিযোগ করে সেবা নিতে পারবেন। এছাড়া অন্য যে কোন সমস্যায় গ্রাহক কল সেন্টারে ফোন করতে পারেন। তিনি বলেন আমরা এখন ৩ থেকে ৪ দিন ধরে বিষয়টি পরীক্ষামূলকভাবে দেখছি। বিদ্যুত বিভাগ সূত্র জানায়, কল সেন্টারের মাধ্যমে সেবা প্রদান করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে সব বিতরণ কোম্পানিকে। কিন্তু কোন বিতরণ কোম্পানি এখনও কল সেন্টার উদ্বোধন করতে পারেনি। কল সেন্টারের মাধ্যমে সেবা প্রদান করলে গ্রাহক উন্নত সেবা পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে কল সেন্টারটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন বিদ্যুত জ্বালানি এবং খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। এদিকে গতকাল বুধবার বিকেলে কল সেন্টারের নাম্বারে ফোন করে সেবা প্রদান শুরুর বিষয়টি জানা গেছে। ঢাকার মধ্যাঞ্চল এবং নারায়ণগঞ্জের একটি অংশে ডিপিডিসি বিদ্যুত বিতরণ করে।