২৬ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নারী নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ বন্ধ করতে হবে ॥ নাসিম

 নারী নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ বন্ধ করতে হবে ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত চক্র রাজপথে সক্রিয় থাকলে ভয় ছিল না। ভয় ওখানেই তারা ১৫ আগস্টের মতো ঘটনা ঘটানোর গভীর চক্রান্তে লিপ্ত আছে কিনা। এই আশঙ্কা একেবারে উড়িয়ে দেয়া যায় না। তাই সবার সতর্ক থাকতে হবে।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন কেন্দ্রীয় ১৪ দলের এ মুখপাত্র।

নাসিম বলেন, বর্তমান সরকারের সফলতা অনেক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও যোগ্য নেতৃত্বের কারণে সর্বক্ষেত্রে দেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। তবে আমরা সব বিষয়ে সফল হলেও একটি বিষয় নিয়ে উদ্বিগ্ন। নারী নির্যাতন, হত্যা ও ধর্ষণ বন্ধ করতে হবে। এই অপরাধীরা প্রকাশ্যে দিবালোকে ক্রমাগত এ ঘটনা ঘটাচ্ছে। এরা বিএনপি-জামায়াতের চেয়ে ভয়ঙ্কর। তাই আমি আইনমন্ত্রীকে বলব, একাত্তরের ঘাতকদের ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে বিচার করে সবার প্রশংসা অর্জিত হয়েছে। নারী নির্যাতন ও ধর্ষণকারীদের ট্রাইব্যুনাল করে দ্রুত বিচার করুন।

এদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিন। অপরাধীরা শাস্তি পেলে অপরাধ কমবে। তাই সামাজিক অপরাধ বন্ধ করতে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরও বলেন, বিএনপি হত্যা, ক্যু ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ক্ষমতা এসেছে। শুধু তাই নয়, আওয়ামী লীগকেও হত্যা ও ক্যু’র মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করেছে। তারা রাজপথের পরাজিত সৈনিক। তারা যেকোন ষড়যন্ত্র করতে পারে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে বঙ্গবন্ধু হত্যার অন্যতম একজন খলনায়ক হিসেবে আখ্যায়িত করেন তিনি।

জোটের কেন্দ্রীয় সভাপতি সারাহ বেগম কবরীর সভাপতিত্বে আলোচনায় আরও ছিলেন সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম পোদ্দার, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডাঃ দিলীপ রায়, আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, জোটনেত্রী অভিনেত্রী তানভিন সুইটি, অভিনেতা মিজানুর মিজান প্রমুখ।