২১ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টুকরো খবর

বগুড়ায় গৃহবধূ খুন

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ বগুড়া সদরের নামুজা এলাকায় সাদিয়া আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূ খুন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির আঙ্গিনায় তার লাশ পাওয়া যায়। সকালে নামুজা বগারপাড়া গ্রামে সাব্বির হোসেন মুহুরির বাড়ির উঠানে তার স্ত্রীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে আশপাশের লোকজন ভিড় জমায়। এ সময় গৃববধূর স্বামী বা শ্বশুরবাড়ির কোন লোকজন বাড়িতে ছিল না। খবর পেয়ে সকালে সাড়ে ৯ টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠান হয়। হত্যাকা-ের কারণ বা কিভাবে গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে পুলিশ কিছু জানতে পারেনি।

.

সালিশে জুতাপেটা ॥ ছাত্রের আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ গ্রাম্য সালিশে বাবাকে দিয়ে জুতাপেটা করায় গোদাগাড়ী উপজেলায় লজ্জায় এক স্কুলছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার নাম জসিম উদ্দিন (১৫)। সে উপজেলার সাহাব্দিপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। জসিম পিরিজপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ি থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে উপজেলার সরমংলা খাড়ির পাশের একটি গাছে তার লাশ ঝুলতে দেখে স্থানীয়রা।

.

কৃষকের পাশে শাবি শিক্ষার্থীরা

শাবি সংবাদদাতা ॥ ধান কেটে কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছেন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ধানের মণপ্রতি বাজার মূল্যের চেয়ে খরচ বেশি হওয়ায় কয়দিন থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কৃষকরা ধানক্ষেতে আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ করেছেন। কৃষকের এমন অসহায় অবস্থায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এসে পাশে দাঁড়িয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েদের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী আবাসিক হলের পাশর্^বর্তী এলাকার আব্দুল মতিন নামক এক কৃষকের ক্ষেতের ধান কেটে সহযোগিতার হাত বাড়ান শিক্ষার্থীরা।

.

আগুন নেভাতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ১৬ মে ॥ সদর উপজেলার জগদল ইউনিয়নের দমদম গ্রামে বুধবার রাত ১০টার দিকে প্রতিবেশী শামীম হোসেনের বাড়ির আগুন নেভাতে গিয়ে পুড়ে মুরাদ হোসেন (২৮) নামে একজন নিহত এবং শামীম ও মনিরুল নামে অপর দুইজন আহত হয়েছে। তাদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জানা যায়, সদর উপজেলার দমদম গ্রামের শামীম হোসেনর বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগলে প্রতিবেশী মুরাদসহ অন্যরা আগুন নেভাতে গেলে বাড়ির মালিক শামীম, মনিরুল ও মুরাদ নামে তিনজন দগ্ধ হয়। তাদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে আনলে মুরাদকে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এই সময় আগুনে বাড়িটি পুড়ে যায়। মাগুরা ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানানো হয়, আগুনে একটি বাড়ি পুড়ে লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।