২৭ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঋণ খেলাপীদের নিয়মিত করতে বিশেষ প্রণোদনা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ঋণ খেলাপীদের সুযোগ দেয়ার পাশাপাশি ব্যাংকগুলোর যারা ‘ভাল’ ঋণগ্রহীতা, তাদের বিশেষ প্রণোদনার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ঋণ খেলাপীরা তাদের মোট ঋণের ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্টে ৯ শতাংশ সুদে এক বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ১০ বছরে ওই টাকা পরিশোধের সুযোগ পাবেন। আর ‘ভাল’ ঋণগ্রহীতাদের কাছ থেকে তাদের ঋণের বিপরীতে যে সুদ আদায় করা হবে, তার ১০ শতাংশ ছাড় দিতে হবে ব্যাংকগুলোকে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আলাদা দুটি সার্কুলারে সিদ্ধান্ত দুটি জানানো হয়।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, ভাল ঋণগ্রহীতাদের কাছ থেকে তাদের ঋণের বিপরীতে যে সুদ আদায় করা হবে তার ১০ শতাংশ রিবেট সুবিধা দিতে হবে। অর্থাৎ কোন গ্রাহকের কাছ থেকে ১০০ টাকা সুদ পাওনা হলে ৯০ টাকা আদায় করে ১০ টাকা ছাড় দিতে হবে। গ্রাহক ‘ভাল’ ঋণগ্রহীতা হলে প্রতি বছর এই সুবিধা অব্যাহত থাকবে। প্রয়োজনে বর্ধিত ঋণ সুবিধাও পাবেন তিনি। ‘ভাল’ ঋণগ্রহীতা সুবিধা পাওয়ার জন্য ঋণগ্রহীতাদের আবেদন করতে হবে না। ব্যাংকগুলোকে নিজ উদ্যোগে তাদের চিহ্নিত করে প্রাপ্যতা অনুযায়ী প্রণোদনা দিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, চলমান/তলবী/মেয়াদী ঋণের ক্ষেত্রে প্রতি বছর সেপ্টেম্বর মাস শেষে বিগত ১২ মাসের (অর্থাৎ বিগত বছরের ১ অক্টোবর থেকে চলতি বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত) সব কিস্তি নির্ধারিত তারিখের মধ্যে নিয়মিতভাবে পরিশোধিত হলে সেই ঋণগ্রহীতা ভাল ঋণগ্রহীতা হিসেবে বিবেচিত হবেন। সুদের ওপর ১০ শতাংশ ছাড় ছাড়াও ভাল ঋণগ্রহীতাদের প্রতি বছর বিশেষ সনদ দিতে হবে ব্যাংকগুলোকে। সেরা ১০ ‘ভাল’ ঋণগ্রহীতার ছবিসহ তাদের ব্যবসা সফলতার সংক্ষিপ্ত চিত্র ব্যাংকের বার্ষিক প্রতিবেদনে প্রকাশ করতে হবে।