২৪ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঈদে অপেশাদার কোন চালককে গাড়ি চালাতে দেয়া হবে না ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবারের ঈদ উপলক্ষে সড়কে অপেশাদার কোন চালককে গাড়ি চালাতে দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রবিবার ঈদ পূর্ববর্তী আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সভা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, এ বিষয়ে যানবাহনগুলোতে কঠোর নজরদারি করা হবে। অদক্ষ চালকরা যানবাহন চালানোয় ঈদের সময় দুর্ঘটনা বেড়ে যায়। এ কারণে বৈধ পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া কাউকে গাড়ি চালাতে দেয়া হবে না। এ বিষয়ে আমরা কঠোর অবস্থানে আছি। এছাড়া পরিবহনে কেউ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঈদ ঘিরে সব কিছু বিবেচনায় রেখেই তারা নিরাপত্তা প্রস্তুতি সাজাচ্ছেন।

জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব জায়গায় আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি রয়েছে। বৌদ্ধ পূর্ণিমা ঘিরেও অনেক কথা শোনা গিয়েছিল। কিন্তু সবকিছু ভালভাবে, শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়েছে। আগামী ঈদ-উল- ফিতর ও আমরা শান্তিপূর্ণভাবে শেষ করতে পারব ইনশাল্লাহ।

ঈদ সামনে রেখে দোকানপাট এবং তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে ৪ জুনও কিছু এলাকায় ব্যাংক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, পোশাক শ্রমিকদের বেতন ভাতা দেয়ার সুবিধার্থে ব্যাংক খোলা রাখতে এফবিসিসিআইয়ের অনুরোধ আছে। এ কারণে বিশেষ বিশেষ এলাকায় জুনের ৪ তারিখও ব্যাংক খোলা থাকবে। এছাড়া ১ জুন ও ব্যাংক খোলা থাকবে।

ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে টার্মিনাল, মার্কেট, দোকানপাট, ঈদগাহসহ সব জায়গায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। শিল্পাঞ্চলসহ বিভিন্ন জায়গায় আমাদের পর্যাপ্ত সিসি ক্যামেরা আছে। কেউ যদি নাশকতা করতে চায় তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া কূটনৈতিক এলাকার নিরাপত্তায় বাড়তি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ঈদ উপলক্ষে ঢাকাসহ সারাদেশে ব্লক রেইড দেয়া হবে। এছাড়া, ঢাকার প্রবেশ ও বের হওয়ার পথে চেকপোস্ট বসানো হবে। বেশিরভাগ মানুষ ঈদে বাড়ি যাওয়ার পর রাজধানীর বাসাবাড়ির নিরাপত্তায় টহল জোরদার করা হবে। ঈদের এই সময়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে।

জঙ্গী হামলার কোন আশঙ্কা আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এমন কোন তথ্য নেই। তবে এ বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থা তৎপর আছে। ঈদে পোশাক শ্রমিকদের বেতন বোনাস দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, নির্দিষ্ট সময়ে বেতন বোনাস দিয়ে পর্যায়ক্রমে তাদের ছুটির ব্যবস্থা করা হবে। বাস ও লঞ্চে অতিরিক্ত ভাড়া নেয়া হলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে, পেশাদার ড্রাইভার ছাড়া মহাসড়কে গাড়ি চলাচল করতে দেয়া হবে না বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

‘ঈদে ঢাকাসহ সারাদেশে নিরাপত্তা জোরদার করা হবে। বিভিন্ন শহরে ব্লক রেইড দেয়া হবে। চুরি-ডাকাতি, ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকা- রোধে ইউনিফর্মধারী পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য মোতায়েন থাকবে।’

তিনি বলেন, ঈদে বিশেষ রেলের ব্যবস্থা থাকবে। ঈদ যাত্রার আগেই বিভিন্ন পথে রাস্তার উন্নয়ন কাজ শেষ হওয়ায় যানজটের দুর্ভোগ কম হবে। যানজট নিরসনে গার্মেন্টস কারখানায় পর্যায়ক্রমে ছুটি থাকবে। যেহেতু দীর্ঘ ছুটি, আমরা বলেছি যাতে সবাইকে একসঙ্গে ছুটি দেয়া না হয়। পর্যায়ক্রমে ছুটি দিলে যানজট কমবে। আর শ্রমিকদের বেতন বোনাস যথাসময়ে দিতে হবে।’

সভায় পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ জাবেদ পটোয়ারী, সুরক্ষা সেবা বিভাগে সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোঃ আসাদুজ্জামান মিয়াসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।