২৭ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

চোখের জলে সিটিকে বিদায় কোম্পানির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সুখের কান্না সঙ্গী করে প্রাণের ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিকে বিদায় বলেছেন ভিনসেন্ট কোম্পানি। তারকা এই ডিফেন্ডার শনিবার রাতে সিটিকে অধিনায়ক হিসেবে ইংলিশ এফএ কাপের শিরোপা জিতিয়েছেন। এরপরই ক্লাবটির সঙ্গে ১১ বছরের বন্ধন ছিন্ন করেছেন ৩৩ বছর বয়সী বেলজিক সেন্টারব্যাক।

আবেগঘন এক খোলা চিঠিতে সমর্থকদের উদ্দেশ করে সিটি অধিনায়ক বিদায় প্রসঙ্গে লিখেন- সকল প্রিয়দের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। আমরা কমিউনিটি শিল্ড, টানা দুটি লীগ কাপ, টানা দুইবার ইংল্যান্ডের চ্যাম্পিয়ন এবং এফএ কাপ জয় করেছি। এবারও আমরা অসাধারণ একটি মৌসুম কাটিয়েছি। আমার এই ১১ বছর পুরোটাই নীল (সিটির রঙ)। তবে আমি বিশ্বাস করতে পারছি না এই মুহূর্তে আমি নিজে যা লিখতে যাচ্ছি...। তবে হ্যাঁ, এটাই আমার শেষ লেখা হতে চলেছে। কোম্পানি লিখতে থাকেন, অসংখ্যবার আমি এই দিনের কথা নিয়ে ভেবেছি। কারণ শেষ অনেক বছর আগে থেকেই নাড়া দিতে শুরু করে। এখনও এটাকে আমার বাস্তব মনে হচ্ছে না। ম্যানসিটি আমাকে সবকিছু দিয়েছে। তার প্রতিদানে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি। ক’জনই বা পারে আমার মতো এভাবে শেষ করতে?

নিজের বিদায় নিশ্চিত করে ৩৩ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডার লিখেন- সময় এসে গেছে আমার বিদায় নেয়ার। আমি অভিভূত। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা ছাড়া আমি আর কিছুই করতে পারব না। আমি ওই সকল মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞ যারা আমাকে এতদিন বিশেষ এই ক্লাবে বিশেষ দিনগুলো কাটানোর সময় পাশে ছিলেন। আমার ভাল-খারাপ দুই সময়ের ম্যানসিটির সমর্থকরা যেভাবে আমার পাশে ছিল তা আমি কখনও ভুলব না। ক্লাব ছাড়ার ঘোষণাপত্রে দলের বর্তমান কোচ পেপ গার্ডিওলা, সিটির মালিক শেখ মনসুর এবং চেয়ারম্যান খালদুন আল মুবারককেও বিশেষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

সিটিকে বিদায় বললেও এখনও নতুন ক্লাব ঠিক করতে পারেননি কোম্পানি। ২০০৪ সাল থেকে বেলজিয়াম জাতীয় দলে খেলছেন তিনি। এখন পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে ৮৭ ম্যাচে করেছেন ৪ গোল। আর সিটির হয়ে ২০০৮ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৩৬০ ম্যাচ খেলে করেছেন ১৮ গোল। কোম্পানির বিদায়ে স্বাভাবিকভাবেই সিটির নতুন অধিনায়ক কে হবেন তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। এক্ষেত্রে এগিয়ে আছেন পর্তুগালের প্লেমেকার বার্নার্ডো সিলভা। স্বয়ং কোম্পানিই সিলভাকে এগিয়ে রাখছেন। সিটির হয়ে দারুণ এক মৌসুম কাটিয়েছেন সিলভা। লীগে এবার তিনি সাত গোলের পাশাপাশি সাতটিতে অন্যদের সহযোগিতা করেছেন। কোম্পানি বিশ্বাস করেন আগামী বছরগুলোতে সিটিকে নেতৃত্ব দেবার সবধরনের গুণাবলী সিলভার রয়েছে। এ প্রসঙ্গে কোম্পানি বলেন, আমি অনেক সময় মজা করে সিলভাকে বলেছি তুমি ৫০ শতাংশ ক্লাউন, ৫০ শতাংশ লিডার। যখন সে ২৫ শতাংশ ক্লাউন ও ৭৫ শতাংশ লিডার হয়ে উঠবে তখনই সিটিকে নেতৃত্ব দেবার যোগ্যতা অর্জন করবে। সে এতটাই শক্তিশালী ও সৎ একজন মানুষ যে এই মুহূর্তে সিটির অধিনায়ক হবার মতো যোগ্যতা তারই আছে। ২৪ বছর বয়সী সিলভা এবার পিএফএ বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের তালিকায় শীর্ষ তিনজনের মধ্যে থাকলেও শেষ পর্যন্ত লিভারপুল ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডিকের কাছে হেরে যান। তবে পিএফএ বর্ষসেরা দলে সিলভা ঠিকই জায়গা করে নিয়েছেন।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া