২৭ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

কন্টাকে হারিয়ে পিসকোভার ইতিহাস

  • ইতালিয়ান ওপেন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পারলেন না জোহানা কন্টা। আবারও তীরে এসে তরী ডুবল ব্রিটিশ তারকার। এবার ইতালিয়ান ওপেনের ফাইনালে হেরে গেলেন তিনি। রবিবার তাকে হারিয়ে রোম ওপেনের শিরোপা জিতলেন ক্যারোলিনা পিসকোভা। চেক প্রজাতন্ত্রের এই তারকা খেলোয়াড় এদিন ৬-৩ এবং ৬-৪ গেমে পরাজিত করেন জোহানা কন্টাকে। সেই সঙ্গে ইতিহাসেও জায়গা করে নেন তিনি। ১৯৭৮ সালের পর চেক প্রজাতন্ত্রের প্রথম প্রমীলা খেলোয়াড় হিসেবে রোমের এই শিরোপা জয়ের রেকর্ড গড়লেন পিসকোভা। তার আগে চেক প্রজাতন্ত্রের সর্বশেষ কোন প্রমীলা খেলোয়াড় হিসেবে রোম ওপেনের চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন রেগিনা মার্সিকোভা।

রোম ওপেনের শিরোপা জিতে দারুণ রোমাঞ্চিত পিসকোভা। এ প্রসঙ্গে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা বলেন, ‘আমার এবং টিমের জন্য এটা দারুণ এক সপ্তাহ। এই টুর্নামেন্টে আমার বেশ কিছু কঠিন ম্যাচও ছিল। তবে আজ কিছুটা নার্ভাস ছিলাম কিন্তু ফাইনাল ম্যাচ বলে গুরুত্বও দিয়েছি অনেক বেশি। শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হতে পেরে আমি সত্যিই খুব খুশি।’

কন্টার বিপক্ষে ছয়বারের মুখোমুখি লড়াইয়ে পাঁচবারই জয় পেয়েছেন পিসকোভা। কিন্তু ২০১৬ সালের পর আর কখনই একে অপরের মুখোমুখি হননি তারা। দীর্ঘদিন পর এবার রোম ওপেনের ফাইনালেই কোর্টে নামলেন তারা। সেন্ট্রাল কোর্টে জোহানা কন্টাকে হারাতে এদিন পিসকোভার সময় লাগে ১ ঘণ্টা ২৫ মিনিট। সাম্প্রতিক সময়ে পিসকোভার পারফর্মেন্স বেশ প্রশংসনীয়। তবে শিরোপা জিততে পারছিলেন না তিনি। বিশেষ করে ক্লে-কোর্টে তার সাফল্য খুবই কম। ২০১৭ সালে রোঁলা গ্যারোঁর সেমিফাইনালের টিকেট কেটেছিলেন তিনি। পরের বছর স্টুটগার্টে অবশ্য বাজিমাত করেছিলেন এই চেক তারকা। দুর্দান্ত খেলেই সেবার এই টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন তিনি। ২০১৮ সালে মাদ্রিদ ওপেনের সেমিফাইনালের টিকেট কেটেছিলেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক এই নাম্বার ওয়ান। এবার রোম ওপেনের শিরোপা উঁচিয়ে ধরলেন তিনি। এই পথে টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে বেলারুশ সুন্দরী ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাকেও হারান পিসকোভা। সেমিফাইনালে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা মারিয়া সাক্কারিকে বিদায় করেন তিনি। ফাইনালে সরাসরি সেটে জোহানা কন্টাকে হতাশ করে ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ক্লে-কোর্টের শিরোপা হাতে তুললেন চেক প্রজাতন্ত্রের এই তারকা খেলোয়াড়।

তবে কন্টাও ক্লে-কোর্টে এবার দুর্দান্ত ফর্মে। ২৮ বছরের এই ব্রিটিশ প্রতিনিধি রোম ওপেনের ফাইনালে ওঠার পথে দুইজন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে থাকা খেলোয়াড়কে পরাজিত করেন। যে কারণে পিসকোভার কাছে হারলেও নিজের অগ্রগতিতে দারুণ সন্তুষ্ট কন্টা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এ বছরে টেনিস কোর্টে যেভাবে এগোচ্ছি এবং প্রতি ম্যাচে যেভাবে উন্নতি করছি তাতে আমি খুব খুশি। মিয়ামির পর এটা আমার দ্বিতীয়সেরা ফাইনাল। এটা আমার জন্য অনেক বড় মুহূর্ত। এমন উন্নতিতে আমি সত্যিই বেশ আনন্দিত।’ রোম ওপেনের ফাইনালে উঠায় ফ্রেঞ্চ ওপেনে বাছাই খেলোয়াড় হিসেবে কোর্টে নামবেন জোহানা কন্টা। অন্যদিকে বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসবেন ক্যারোলিনা পিসকোভা।

এদিকে বিশ্ব টেনিসের জীবন্ত দুই কিংবদন্তি নোভাক জোকোভিচ আর রাফায়েল নাদাল। বর্তমানেও শীর্ষে অবস্থান করছেন তারা। সার্বিয়ান তারকা নোভাক জোকোভিচ এক নম্বরে। আর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন স্প্যানিশ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদাল। টেনিস কোর্টে এই দুইজনের দ্বৈরথও বেশ রোমাঞ্চকর। সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে উভয় তারকা মিলেই অনেক ঐতিহাসিক ম্যাচ উপহার দিয়েছেন। ইতালিয়ান ওপেনের ফাইনালেও একে অপরের মুখোমুখি হন রাফায়েল নাদাল আর নোভাক জোকোভিচ। যা তাদের ক্যারিয়ারের ৫৪তম মুখোমুখি লড়াই।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া