২৬ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জুভেন্টাসের হোঁচট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাঁচ ম্যাচ আগেই ইতালিয়ান সিরি এ লীগের শিরোপা নিশ্চিত করেছে জুভেন্টাস। তবে শিরোপা জয়ের পরই যেন বাজে সময় পার করছে ক্লাবটি। রবিবার আটালান্টার সঙ্গেও ১-১ গোলে ড্র করেছে ম্যাসিমিলিয়ানো এ্যালেগ্রির শিষ্যরা।

ডিসেম্বরে লীগের প্রথম পর্বে ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর শেষ দিকের গোলে আটালান্টার মাঠ থেকে ২-২ ড্র করে ফিরেছিল জুভেন্টাস। গত সপ্তাহে রোমার মাঠে ২-০ গোলে হেরেছিল এ্যালেগ্রির দল। আটালান্টার সঙ্গে আবারও হোঁচট খেল তারা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ আট ম্যাচে এটা তাদের চতুর্থ ড্র। এ সময়ে তিনটিতে হেরেছে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে ছিটকে যাওয়া দলটি।

অথচ ম্যাচের প্রথম মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিল জুভেন্টাস। কিন্তু পেনাল্টি স্পটের কাছে ফাঁকায় বল পেয়ে উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন রোনাল্ডো। অষ্টম মিনিটে ডাচ ডিফেন্ডার হান্স হাতেবুরের শট পোস্টে লাগলে বেঁচে যায় স্বাগতিকরা। ৩৩তম মিনিটে আর জাল অক্ষত রাখতে পারেনি শিরোপাধারীরা। ডানদিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো ক্রস দূরের পোস্টে পেয়ে টোকায় জাল খুঁজে নেন বসনিয়ার মিডফিল্ডার ইয়োসিপ ইলিচিচ। দ্বিতীয়ার্ধের ৭১তম মিনিটে ইলিচিচের ফ্রি-কিকে বল ব্লেইস মাতুইদির মাথায় লেগে জালে ঢুকতে যাচ্ছিল। শেষ মুহূর্তে গোলরক্ষক ভয়চেখ স্ট্যাসনি কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে দিলে ব্যবধান বাড়েনি।

৮০তম মিনিটে মানজুকিচের দারুণ এক গোলে সমতায় ফেরে জুভেন্টাস। হুয়ান কুয়াদরাদোর উঁচু করে বাড়ানো বলে বাইলাইনে ঝাঁপিয়ে টোকা দেন আন্দ্রেয়া বারজাগলির বদলি নামা ক্রোয়াট ফরোয়ার্ড। বল গোলরক্ষকের পায়ে লেগে দূরের পোস্ট ছুঁয়ে ভেতরে ঢোকে। বাকি সময়ে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ চললেও পার্থক্য গড়ে দিতে পারেনি কেউ। উল্টো যোগ করা সময়ে প্রতিপক্ষের ফরোয়ার্ড মুসাকে বিপজ্জনক ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন জুভেন্টাসের ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড ফেডেরিকো বের্নারডেস্কি। ৩৭ ম্যাচে ২৮ জয় ও ছয় ড্রয়ে জুভেন্টাসের পয়েন্ট ৯০। আগামী রবিবার লীগের শেষ রাউন্ডের ম্যাচে সাম্পদোরিয়ার মাঠে খেলতে যাবে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি।