১৯ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইরান থেকে জ্বালানি আমদানি করতে পারবে ইরাক

ইরান থেকে জ্বালানি আমদানি করতে পারবে ইরাক

অনলাইন ডেস্ক ॥ ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান থেকে জ্বালানি আমদানি করার ক্ষেত্রে ইরাককে একতরফা নিষেধাজ্ঞা ছাড় দিয়েছে মার্কিন সরকার। ফলে ইরান থেকে প্রতিবেশী ইরাক জ্বালানি আমদানি অব্যাহত রাখতে পারবে।

ইরাকে নিযুক্ত মার্কিন চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স জোয়ে হুড সম্প্রতি সাংবাদিকদের একথা জানান। তিনি বলেন, বাগদাদ এখন ইরান থেকে জ্বালানি আমদানি করতে পারবে। ইরানের আরবি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল আল-আলম এ খবর দিয়েছে। এর আওতায় ইরান থেকে ইরাক গ্যাস ও বিদ্যুৎ কিনতে পারবে।

এর আগে গত মার্চ মাসে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন দ্বিতীয় দফায় ইরাককে ৯০ দিনের নিষেধাজ্ঞা ছাড় দিয়েছিল। তার মেয়াদ থাকতেই নতুন করে জোয়ে হুড এ বক্তব্য দিলেন। ফলে তার বক্তব্য নিয়ে একরকমের জটিলতা থেকেই গেল। তিনি আগের নিষেধাজ্ঞা ছাড়ের কথা বলেছেন নাকি নতুন ঘোষণা দিলেন -তা পরিষ্কার নয়।

ইরাকে প্রতিদিন ১৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুত প্রয়োজন; তার মধ্যে শতকরা ৪৫ ভাগ বিদ্যুত উৎপাদন হয় ইরান হতে আমদানি করা গ্যাস থেকে। এছাড়া, দেশটির জন্য সরাসরি এক হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রপ্তানি করে ইরান। এর বাইরে ইরাক প্রতিবেশী ইরানের ওপর খাদ্য থেকে শুরু করে যন্ত্রপাতি, বিদ্যুৎ, প্রাকৃতিক গ্যাস, ফল ও সবজির মতো প্রায় সব ক্ষেত্রেই নির্ভর করে।

মার্কিন প্রশাসন ইরাকের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে যে, ইরান থেকে বাগদাদ যেন প্রাকৃতিক গ্যাস ও বিদ্যুৎ আমদানি না করে। কিন্তু ইরাক সে চাপ অগ্রাহ্য করার চেষ্টা করছে।

নির্বাচিত সংবাদ