২৭ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দিনাজপুরে বেকারীকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা

দিনাজপুরে বেকারীকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ বেকারীর কারখানায় খাদ্যে মেশানো হচেছ বিষাক্ত কেমিক্যাল, বিভিন্ন প্রকার বেকারী পণ্য তৈরী হচ্ছে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে আর মেয়াদ উত্তীর্ণ সেমাই বাজারজাত করা হচ্ছে। ভেজাল বেকারী পণ্য উৎপাদন, বাজারজাত ও বিপননের অভিযোগে দিনাজপুরে রোলেক্স বেকারী নামে একটি বেকারীতে অভিযান চালিয়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্যদ্রব্য, অপরিস্কার পদ্ধতিতে খাদ্য সামগ্রী তৈরী ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল মেশানোর দায়ে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

শুক্রবার রাতে দিনাজপুর সদর উপজেলার উত্তর গোসাইপুরে রোলেক্স বেকারীর কারখানায় খাদ্যে ভেজাল বিরোধী এই অভিযান চালায় র্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে র্যাবের একটি দল। এসময় র্যাব ১৩, দিনাজপুর সিপিসি-১ ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর গালিব মোহাম্মদ নাতিকুর রহমানসহ কয়েকজন ব্যবসায়ী উপস্থিত ছিলেন। অভিযানকালে বেকারীর কারখানায় বিভিন্ন মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্যদ্রব্য, অপরিস্কার পদ্ধতিতে খাদ্য সামগ্রী তৈরী ও মানবদেহে ক্ষতিকারক কেমিক্যাল মেশানোর প্রমান পায় র্যাব। পরে রোলেক্স বেকারীর ইনচার্জ আশরাফুল ইসলামকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদ- প্রদানের রায় প্রদান করা হয়।

র্যাব জানায়, ঘি’সহ এবং কমলাসহ বিভিন্ন ধরনের ফলের (ফ্লেবার) সুগন্ধিযুক্ত কেমিক্যালের সহায়তায় ওই কারখানায় অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে নি¤œমানের খাদ্যপন্য উৎপাদনের খবর পেয়ে অভিযানে নামেন তারা। এ সময় প্রায় ১০ লক্ষ টাকা সমমুল্যের নামিদামি খাদ্য উৎপাদনে ব্যবহৃত ২২ ধরনের বিষাক্ত কেমিক্যাল ও মেয়াদ উর্ত্তিণ সেমাই জব্দ করে ধ্বংস করা হয়। প্রথম দফায় অর্থদন্ডসহ সতর্ক করা হয়েছে। পুনরায় এধরনের ভেজাল সামগ্রী উৎপাদনের প্রমান পাওয়ার গেলে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।

র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আনিসুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্যদ্রব্য থাকা, অপরিস্কার পদ্ধতিতে খাদ্য সামগ্রী তৈরী ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল মেশানোসহ বিভিন্ন ভেজাল পন্য পাওয়ায় ২০১৩ সালের খাদ্য নিরাপত্তা আইনের ৩৩ ধারা মতে ৬ লাখ জরিমানা প্রদান করা হয়।

এই মাত্রা পাওয়া