২৭ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতকে উড়িয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবারের বিশ্বকাপে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা ভারতকে ফেভরিটের তালিকাতেই রেখেছেন। কিন্তু ওয়ার্ম-আপ ম্যাচে দেখা গেল একেবারে উল্টো চিত্র। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে হার দিয়ে শুরু করলেন বিরাট কোহলিরা। ব্যাটিং বিপর্যয়ে কেন উইলিয়ামসনদের কাছে মুখ থবড়ে পড়ল টিম ইন্ডিয়া। হেরে গেল ৬ উইকেটে। টস জিতে ভারত গুটিয়ে যায় ১৭৯ রানে। জবাবে নিউজিল্যান্ড কেন উইলিয়ামসন ও রস টেইলরের ব্যাটে ভর করে আয়েশি জয় কুড়িয়ে নেয়। উইলিয়ামসন ৬৭ ও টেইলর ৭১ রান করেন। এতেই জয়ের জন্য ১৮০ রান তুলে নেয় তারা ৬ উইকেটে।

বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম লডাই ৫ জুন। তার আগে দুটি ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ খেলার কথা। গতকাল শনিবার তাদের প্রতিপক্ষ ছিল নিউজিল্যান্ড। আর সেই কিউই বাহিনীর বিরুদ্ধে চরমভাবে ব্যর্থ কোহলিরা। বিশ্রী ব্যাটিংয়েই হারতে হলো তাদের। রোহিত-ধাওয়ান-রাহুলদের দেখে মনে হচ্ছিল টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেমেছেন। সদ্য আইপিএল খেলে ইংল্যান্ড উড়ে গেছে তারা। দেশের জার্সি গায়ে বড় দায়িত্ব ক্রিকেটারদের ওপর। কিন্তু পঞ্চাশ ওভারের ম্যাচ গুটিয়ে গেল ৩৯.২ ওভারেই। দুই ওপেনার রোহিত ও ধাওয়ান শুরুতেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। কোহলির (১৭) ব্যাটিংও তথৈবচ। এদিন সকলের নজর ছিল চার নম্বর ব্যাটসম্যানের দিকে। বিজয় শংকর চোট পাওয়ায় তাকে দলে রাখা হয়নি। তাহলে কে নামবেন? এ প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছিল। কৌতূহলের অবসান ঘটিয়ে ক্রিজে এলেন কে এল রাহুল। কিন্তু এই পজিশনে ব্যর্থ তিনিও। মাত্র ৬ রান করেই আউট হন। যে দেশে বিশ্বকাপ, সেখানকার পরিবেশ, উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার জন্যই ওয়ার্ম-আপ ম্যাচের আয়োজন করা হয়। তাই এর গুরুত্ব অনেক। কিন্তু ওয়ার্ম-আপ ম্যাচকে ভারতীয় দল ঠিক কতটা গুরুত্ব দিল, সত্যিই বোঝা গেল না। যে দলকে সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়নের তালিকায় রেখেছেন প্রাক্তনরা, সেই দল ইংল্যান্ডে পা রেখে শুরুতেই এত ছন্নছাড়া খেলবে, যেন ভাবাই যায়নি। পান্ডিয়া ৩০ ও জাদেজা ৫৪ রান করে খানিকটা মান রক্ষা করলেন। তবে জয়ের জন্য তা একেবারেই যথেষ্ট ছিল না। ফলে যা হওয়ার তাই হলো। মাত্র ৩৭.১ ওভারেই ৬ উইকেটে অনায়াসে ম্যাচ পকেটে পুরলেন কিউয়িরা। বুমরাহ, পান্ডিয়া, চাহাল ও জাদেজা একটি করে উইকেট পান।

ইংল্যান্ডকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

বিশ্বকাপের আগেই ওয়ার্ম-আপ ম্যাচে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। আর সেই লড়াইয়ে মর্গানহীন ইংল্যান্ডকে ১২ রানে হারিয়ে দিল অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপ শুরুর আগেই নিজের জাত চিনিয়ে রাখলেন স্টিভ স্মিথ। প্রস্তুতি ম্যাচে শতরান করলেন তিনি। আঙুলের চোটের জন্য এই ম্যাচে খেলেননি ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মর্গান। খেলেননি জো রুটও। খেলেননি অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্কও। টস জিতে এদিন প্রথমে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাট করতে পাঠান ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জোস বাটলার। অজি অধিনায়ক অ্যারোন ফিঞ্চ (১৪) দ্রুত প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। ৫৫ বলে ৪৩ রান করে ফিরলেন আর এক ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। ৩০ রান করেন শন মার্শ। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার রানকে টেনে তোলেন স্টিভ স্মিথ। ১০২ বলে ১১৬ রান করেন তিনি। ইসমান খোয়াজা ৩১ এবং এ্যালেক্স ক্যারে ৩০ রান করেন। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৯৭ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ডের হয়ে লিয়াম প্লাঙ্কেট ৪টি উইকেট নেন। ২৯৮ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড। জেমস ভিনস ৬৪, জোস বাটলার ৫২ এবং ক্রিস ওকস ৪০ রান করেন। শেষ পর্যন্ত ২৮৫ রানে অল আউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বেহেরনড্রফ ও রিচার্ডসন ২টি করে উইকেট নেন। বিশ্বকাপের অন্যতম ফেভারিট ইংল্যান্ডকে ১২ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপের আগে বেশ খানিকটা আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নিল অস্ট্রেলিয়া।