১৯ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় ওয়ার্কশপ কর্মচারী নিহত

  • গ্রেফতার ৫১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় এক ওয়ার্কশপ কর্মচারী নিহত হয়েছে। এদিকে তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশনে চলন্ত ট্রেনের ছাদে ছিনতাইকারীরা এক আনসার সদস্যকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে সর্বস্ব ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। এছাড়া মাদকদ্রব্য সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৫১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রবিবার সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রাজধানীর সায়েদাবাদে সড়ক দুর্ঘটনায় হরি বাবু (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। তিনি সায়েদাবাদ এলাকায় একটি ওয়ার্কশপে কাজ করতেন। নিহতের স্ত্রী শংকরী রানী বর্মন জানান, দুই সন্তানকে নিয়ে সায়েদাবাদ এলাকায় থাকেন তারা। তিনি জানান, রবিবার সকাল ৯টার দিকে তার স্বামী কর্মস্থলের উদ্দেশে বাসা থেকে বের হয়ে যান। এর কিছুক্ষণ পর এক লোক তাকে ফোনে বলেন, তার স্বামী হরি সায়েদাবাদ এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে দেখেন স্বামী হরিবাবু অবচেতন অবস্থায় পড়ে আছে।

চলন্ত ট্রেনের ছাদে ছিনতাই ॥ রাজধানী তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশনে চলন্ত ট্রেনের ছাদে ছিনতাইকারীরা রাজীব মিয়া (২২) নামে এক আনসার সদস্যকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে সর্বস্ব ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতের বড় ভাই শাহ আলম জানান, রাজীব সাধারণ আনসার সদস্য। সে নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানার জনতা ব্যাংকে ডিউটি করত। তিনি জানান, রবিবার মহেশপুর ৫৮ ব্যাটালিয়নে চাকরির জন্য দাঁড়াতে শনিবার নরসিংদী থেকে তিতাস এক্সপ্রেস ট্রেনে সে ঢাকায় আসছিল। পথিমধ্যে সন্ধ্যার দিকে তেজগাঁও কাঁচাবাজার এলাকায় চলন্ত ট্রেনের ছাদে দুই ছিনতাইকারী তার বুকে ছুরি চালিয়ে নগদ দুই হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে বক্ষব্যাধি হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গ্রেফতার ৫১॥ রাজধানীতে মাদকদ্রব্য সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ৫১ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ। ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার মোঃ মাসুদুর রহমান জানান, রবিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীর ৫০ থানা এলাকায় ডিবি পুলিশ ও থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৬ হাজার ৫১২টি ইয়াবা, ৭২০ পুরিয়া হেরোইন, কিছু গাঁজা এবং ১৯৬ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

ইজ্জত বাঁচাতে কলেজ ছাত্রীর দোতলা থেকে লাফ ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা মির্জাপুর থেকে জানান, ইজ্জত বাঁচাতে দোতলা থেকে লাফিয়ে নিচে পড়ে এক কলেজ ছাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। এক এনজিও কর্মকর্তা চাকরি দেয়ার নামে কলেজ ছাত্রীকে অফিস কক্ষে ডেকে নিয়ে কক্ষের দরজা আটকে দেয়ার চেষ্টা করলে সে অফিস ভবনের দোতলা থেকে লাফিয়ে আহত হন বলে জানা গেছে। রবিবার বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের পাকুল্যাতে এ ঘটনাটি ঘটে। হাবিবাকে গুরুতর অবস্থায় কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দোতলা থেকে লাফিয়ে পড়ায় তার কোমরের হাড় ভেঙ্গে গেছে বলে কর্তব্যরত ডাক্তার মিথুন কুমার রায় জানিয়েছেন। সে এ বছর টাঙ্গাইল কুমুদিনী সরকারী কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন। তার বাড়ি মির্জাপুরের জামুর্কী ইউনিয়নের চুকুরীয়া গ্রামে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের পাকুল্যা বাজারে অবস্থিত যুগবাণী সমাজকল্যাণ নামে এক এনজিওর এরিয়া ম্যানেজার তানজিরুল হাসান জীবনের সঙ্গে প্রায় পাঁচ দিন আগে টাঙ্গাইল যাওয়ার সময় বাসে মেয়েটির পরিচয় হয়। এ সময় সে নিজেকে এশিয়া ব্যাংকের কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেয়। পরিচয় হওয়ার পর জীবন তাকে তার অফিসে চাকরি দেয়ার আশ্বাস দেয়। রবিবার বেলা এগারোটার দিকে ওই জীবন এনজিওর এক মহিলা স্টাফকে দিয়ে তাকে ডেকে তার অফিসে নেন। সেখানে তার অফিস কক্ষে জীবন ছাড়া অন্য কেউ ছিলেন না। এ সময় অন্য কোন অফিস স্টাফ না থাকায় মেয়েটি অফিস কক্ষ থেকে বের হতে চাইলে জীবন তার কক্ষের দরজা আটকে দেয়ার চেষ্টা করে। মেয়েটি কক্ষ থেকে বের হয়ে এলেও দোতলার গেটটিও বন্ধ পান। এ সময় জীবনের অসৎ উদ্দেশ্য আঁচ করতে পেরে ইজ্জত বাঁচাতে দোতলা থেকে লাফিয়ে নিচে পড়েন মেয়েটি। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করেন।

নির্বাচিত সংবাদ