২৭ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দুই পেসারের তাণ্ডবে টানা দ্বিতীয় জয় অস্ট্রেলিয়ার

দুই পেসারের তাণ্ডবে টানা দ্বিতীয় জয় অস্ট্রেলিয়ার

অনলাইন ডেস্ক ॥ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৫ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিল অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছিল অজিরা।

বৃহস্পতিবার নটিংহামের ট্রেন্ট ব্রিজে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। যেখানে ৪৯ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে ২৮৮ রান করে দলটি। তবে লক্ষ্যে নেমে পুরো ৫০ ওভার খেললেও ৯ উইকেট হারিয়ে ২৭৩ রানে বেশি করতে পারেনি জেসন হোল্ডাররা।

এদিন প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ক্যারিবীয় বোলারদের তোপের মুখে পড়ে অজিরা। ৭৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বসে দলটি। তবে বিপর্যয় সামাল দেন স্টিভেন স্মিথ। তিনি মার্কাস স্টোইনিস, অ্যালেক্স ক্যারি ও নাথান কোল্টার নাইলের সঙ্গে তিনটি জুটি গড়ে দলকে ভালো অবস্থায় নিয়ে যান। ১০৩ বলে ৭টি চারে ওশানে টমাসের বলে আউট হওয়ার আগে ৭৩ রান করেন স্মিথ।

অজিদের শেষ দিকে রান বাড়াতে মূল ভূমিকা রাখেন কোল্টার-নাইল। আট নম্বরে নেমে বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে বিশ্বকাপ রেকর্ড গড়লেন তিনি। করেছেন ৬০ বলে ৯২ রান। কার্লোস ব্র্যাথওয়েটেরে বলে আউট হওয়ার আগে তিনি নিজের ইনিংস সাজান ৮টি চার ও ৪টি ছক্কায়।

সপ্তম উইকেট জুটিতে কোল্টার-নাইল ও স্টিভেন স্মিথ ১০২ রানের জুটি গড়েন। বিশ্বকাপ ইতিহাসে এই জুটিতে এটিও রেকর্ড। এর আগে জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার হিথ স্ট্রিকের ২০০৩ বিশ্বকাপে এই রেকর্ডটি গড়েছিলেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সে ম্যাচে ৮৪ বলে ২ ছয় ও ৬ চারে অপরাজিত ৭২ রান করেছিলেন স্ট্রিক। ক্যারের ব্যাট থেকে আসে ৪৫ রান।

ক্যারিবীয় বোলারদের মধ্যে ব্রাথওয়েট সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট পান। আর টমাস, শেলডন কোটরেল ও আন্দ্রে রাসেল দুটি করে উইকেট ভাগ করেন নেন। হোল্ডার পান একটি উইকেট।

২৮৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যাটসম্যানদের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও হার দেখতে হয় উইন্ডিজদের। শাই হোপ ১০৫ বলে সর্বোচ্চ ৭টি চারে ৬৮ করেন। হোল্ডারের ব্যাট থেকে আসে ৫৭ বলে ৫১ রান। দলটিকে মূলত দারুণ বোলিং করে হারতে বাধ্য করেন অজি পেসার স্টার্ক। এই বিশ্বকাপে প্রথম পাঁচ উইকেট শিকার তার হাত ধরেই হলো। এছাড়া প্রথম চার উইকেট নিয়ে নিজের ক্যারিয়ারে ১৫০ উইকেটের মালিক হলেন তিনি। বর্তমানে তার উইকেট সংখ্যা ১৫১।

অজিদের হয়ে অন্য বোলারদের মধ্যে প্যাট কামিন্স দুটি ও অ্যাডাম জাম্পা একটি উইকেট পান। ক্যারিয়ার সেরা ৯২ রান করে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন নাথান কোল্টার নাইল।