১২ জুন ২০১৯

যাত্রীর চাপ সামাল দিতে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ব্যারিকেড

যাত্রীর চাপ সামাল দিতে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ব্যারিকেড

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর ॥ আজ বুধবার বেলা বাড়ার সাথে সাথে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌপথের কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ঢাকামুখী যাত্রী চাপ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ঢাকার সাথে স্বল্প দূরত্ব হওয়ায় দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ হয়ে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌপথে কর্মস্থলে ফিরছেন। যে কারণে অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর কর্মস্থলমুখী যাত্রীদের চাপ মারাত্বক আকার ধারণ করেছে। যাত্রী চাপ সামাল দিতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা লঞ্চ ঘাটে একাধিক ব্যারিকেডের সৃষ্টি করেছে। এরপরও হুমড়ি খেয়ে পড়েছে যাত্রীরা। লঞ্চ ও স্পীডবোটে ভীড় চোখে পড়ার মতো। ফেরিঘাট, লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাটের কোথার তিল ধারণের ঠাঁই নেই। যাত্রীদের চাপের পাশাপাশি ফেরিঘাটে রয়েছে যানবাহনের চাপ। প্রচন্ড গরমে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে কয়েকগুণ। লঞ্চগুলো ধারণ ক্ষমতার বেশি লোডমার্ক মেনে চলাচল করছে। এখনো মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট থেকে খালি ফেরি-লঞ্চ-স্পীডবোট এনে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া হচ্ছে। এদিকে যাত্রী হয়রানী অব্যাহত রয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলো থেকে ছেড়ে আসা সকল যানবাহনের সাথে এ রুটের নৌযানগুলোর বিরুদ্ধেও বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ অহরহ। ফেরিতে যাত্রীদের সাথে অসদাচরণের অভিযোগে ঘাট ইজারাদার পক্ষের ২ স্টাফকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসিসহ একাধিক সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেল থেকে বুধবার বেলা বাড়ার সাথে সাথে কাঁঠালবাড়ি কর্মস্থলমুখী যাত্রীরা যেন হুমড়ি খেয়ে পড়ে। দক্ষিণাঞ্চল থেকে শিবচরের কাঁঠালবাড়ি ঘাটে ছেড়ে আসা লোকাল ও দূরপাল্লার যানবাহনে উপচেপড়া ভীড় লেগেই আছে। লঞ্চে যাত্রী নিয়ন্ত্রনে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশসহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কয়েক দফা ব্যারিকেডের সৃষ্টি করে। ঘাটে বিআইডব্লিউটিএর একটি বিশেষ টিম অবস্থান করছে। প্রশাসনের কড়াকড়ির কারণে লঞ্চগুলোতে ৩৩ টাকার ভাড়া ৩৫ টাকা নেওয়া হচ্ছে। তবে স্পীডবোটের বাড়তি ভাড়ার দৌড়াত্ব কমেনি। ১শ ২০ টাকার ভাড়া এখনো ২‘শ টাকা করে আদায় করা হচ্ছে। কাঁঠালবাড়ি ও শিমুলিয়া ঘাটে স্পিডবোট নিয়ন্ত্রণকারী সিন্ডিকেট খুব শক্তিশালী। কোনো কিছুর প্রতিবাদ করলেই তারা যাত্রীদের ওপর চড়াও হয়। মানসম্মান ও জীবনের ভয়ে যাত্রীরা সবকিছু সহ্য করে পদ্মানদী পার হতে বাধ্য হচ্ছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে অবস্থান করছেন শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান, সহকারী পুলিশ সুপার আবির হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল নোমান, সালমা পারভীন, শিবচর থানার ওসি জাকির হোসেন মোল্লা।