২০ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জামালপুর পৌর কাউন্সিলরসহ আট আসামি কারাগারে

জামালপুর পৌর কাউন্সিলরসহ আট আসামি কারাগারে

নিজস্ব সংবাদদাতা, জামালপুর ॥ কালের কণ্ঠের জামালপুর প্রতিনিধি মোস্তফা মনজু’র ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার নয়জন আসামির মধ্যে প্রধান আসামি জামালপুর পৌরসভার কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ আটজনের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। আদালতের আদেশের পর কোর্ট পুলিশ তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে।

মামলাটির গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আটজন আসামি বুধবার দুপুরে জামালপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জামালপুর সদর আমলি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে শুনানি শেষে তাদের প্রত্যেকের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সোলায়মান কবীর। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সাংবাদিক মোস্তফা মনজু’র দায়ের করা মামলাটির প্রধান আসামি পৌর কাউন্সিলর ও স্ট্যাম্পভেন্ডার হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ নয়জন আসামি ৩০ মে আদালত থেকে জামিন নিয়ে মামলার বাদীসহ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন।

১ জুন ও ২ জুন মামলার বাদীসহ জেলায় কর্মরত ৪৮ জন সাংবাদিক জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে পৃথকভাবে জামালপুর সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। রবিবার মামলাটির বাদী তার আইনজীবী মো. শাসছুল হকের মাধ্যমে জামালপুর সদর আমলি আদালতে মামলাটির সকল আসামিদের জামিন বাতিলের আবেদন জানান। বাদীর আবেদন মঞ্জুর করে বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সোলায়মান কবীর তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। গ্রেফতার পরোয়ানা জারি হওয়ার পর গত চারদিনেও পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

বুধবার মামলাটির ৫ নম্বর আসামি রাকিব খান ব্যতীত বাকি আটজন আসামি জামালপুর সদর আমলি আদালতে হাজির হয়ে আইনজীবী আমান উল্লাহ আকাশের মাধ্যমে আসামিদের জামিনের আবেদন জানান। এ সময় বাদী পক্ষের আইনজীবী মো. ফজলুল হকসহ বেশ কয়েকজন আইনজীবী আসামিদের জামিনের আপত্তি জানান। জামিনের আবেদনের শুনানি শেষে সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সোলায়মান কবীর ওই আবেদন নামঞ্জুর করে পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ আটজন আসামিকে জেলা কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালতে হাজির হওয়া অন্য সাতজন আসামিরা হলেন- জামালপুর শহরের পাথালিয়া এলাকার মো. উকিল মিয়া এবং দেওয়ানপাড়া এলাকার তুহিন খান, স্বজন খান, সিদ্দিক মন্ডল, আলমগীর বাচ্চু, দলিল লেখক হাবিবুর রহমান ও তুষার খান।

জামালপুর কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল কাদের মিয়া জানান, আদালতের আদেশের পর বেলা পৌনে ৩টার দিকে মামলাটির প্রধান আসামি পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ আটজন আসামিকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।