১৭ জুন ২০১৯

লজ্জার রেকর্ডটা গড়েই ফেললো মোহামেডান!

লজ্জার রেকর্ডটা গড়েই ফেললো মোহামেডান!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ রেকর্ড যে হচ্ছেই, সেটা অনুমেয়ই ছিল। শুধু প্রশ্ন ছিল, কবে হচ্ছে? সেই প্রশ্নের জবাবও মিলেছে। অগৌরব এবং লজ্জার রেকর্ডটা শেষ পর্যন্ত গড়েই ফেললো ঘরোয়া ফুটবলের ঐতিহ্যবাহী দল মোহামেডান স্পোর্টি ক্লাব লিমিটেড। সেটা হচ্ছে নিজেদের লীগ-ইতিহাসে এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি ৯টি ম্যাচে হারার অগৌরবের রেকর্ড!

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে রবিবার রাতের খেলায় তারা ৪-২ গোলে হেরে যায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের কাছে। আর এই হারের লজ্জার রেকর্ডটি গড়ে সর্বশেষ ২০০২ সালে লীগ জেতা মোহামেডান। যদিও আশ্চর্যের ব্যাপারÑ ১৭ বছর ধরে লীগ না জিতেও আজও তারা পরিসংখ্যানের বিচারে ঢাকা লীগের সর্বাধিক ১৯ বারের চ্যাম্পিয়ন! গত একযুগ ধরে ঈর্ষণীয় সাফল্যের মুখ দেখা আবাহনী এত বার লীগ জিতেও তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে এখনও টপকাতে পারেনি। তাদের লীগ শিরোপাসংখ্যা ১৭। অর্থাৎ মোহামেডানের চেয়ে এখনও দুটি কম! যদিও প্রিমিয়ার বা পেশাদার লীগে এখনও শিরোপা জেতা হয়নি ৮৩ বছর বয়সী মোহামেডানের (তবে হ্যাটট্রিক রানার্সআপ হয়েছে প্রথম তিন আসরে)।

এর আগে মোহামেডান লীগে সবচেয়ে বেশি ৮টি করে ম্যাচ হেরেছিল তিন বার। সেটা ২০১০-১১, ২০১৬ এবং ২০১৭-১৮ মৌসুমে। ২০১০-১১ মৌসুমে ২২ ম্যাচ খেলে ৮ জয়, ৬ ড্র, ৮ হারে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে ১২ দলের মধ্যে ষষ্ঠ হয়েছিল তারা। এরপর ২০১৬ মৌসুমে তো অল্পের জন্য রেলিগেডেট হওয়ার হাত থেকে ইজ্জত বাঁচায়। ১২ দলের মধ্যে কোনমতে দশম স্থান অর্জন করে। সেবার তারা ২২ ম্যাচে মাত্র ৩টিতে জেতে। ড্র করে ১১ ম্যাচে। আর হারে ৮ ম্যাচে। নিজেদের ইতিহাসে এই প্রথম ম্যাচের চেয়ে পয়েন্ট কম হয়ে যায় (২০ পয়েন্ট) তাদের! এমনকি গোল করার চেয়ে গোল হজমও করে বেশি (২০ গোলের বিপরীতে ২৯ গোল)। ২০১৭-১৮ মৌসুমেও ৮ ম্যাচে হারে হারা। তবে ৯ ম্যাচ জিতে ও ৫ ম্যাচ ড্র করে মোটামুটি পয়েন্ট পাওয়ায় (৩২) পয়েন্ট টেবিলে আশাব্যঞ্জক অবস্থানেই ছিল তারা (১২ দলের মধ্যে পঞ্চম)।

২০১৪ সালে মোহামেডান জিতেছিল সর্বশেষ কোন শিরোপা (স্বাধীনতা কাপ)। এরপর শুধুই হাহাকার আর হতাশা। যে ক্লাবকে নিয়ে ফুটবল ভক্তদের আবেগ-উন্মাদনা ছিল, স্টেডিয়ামের গ্যালারি দুই ভাগে বিভক্ত হতো, সেই অতীতের সফল মোহামেডান গত কয়েক বছর ধরেই যেন পরিণত হয়েছে বর্তমানের কংকালে!

এবারের (২০১৮-১৯) মৌসুমে প্রথম পর্বের খেলা শেষে ‘সর্বকালের সর্বজঘন্য’ ফল করে বসে মোহামেডান। ১৬ ম্যাচে সর্বসাকুল্যে জয় পেয়েছে মাত্র ৩টি! ৪ ম্যাচে ড্র করেছে। আর হেরেছে ৯টিতে। ম্যাচের চেয়ে গোল ও পয়েন্ট এবার অনেক কম। ১৬ গোলের বিপরীতে গোল খেয়েছে ৩১টি! আর পয়েন্ট? মাত্র ১৩!

অথচ ১৯৮০-১৯৯২ সাল পর্যন্ত ১২ বছরে লীগে মোহামেডানের হার ছিল মাত্র ৮টিতে। এর মাঝে ১৯৮৫’র সুপার লীগের শেষের দিক হতে শুরু করে ৯০/৯১ সালের লীগ পর্যন্ত টানা ৭৬ ম্যাচে অপরাজিত ছিল তারা! তাদের ওই রেকর্ড এখনও অটুট। অথচ সেই দলটিই কিনা এবারের লীগের প্রথমপর্বের ১২ খেলার ৮টিতেই হেরেছে! টিম বিজেএমসি, নোফেল স্পোর্টিং এবং ব্রাদার্স ইউনিয়নের সঙ্গেই রেলিগেশন জোনে লড়াই চলছে মোহামেডানের।

লজ্জার রেকর্ড তো হয়েই গেল। এখন দেখার বিষয়, লীগে অবনমন থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারে কি না সাদা-কালো শিবির।