১৭ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভোটের জন্য আমাদের বহু লোক জীবন উৎসর্গ করেছে ॥ মতিয়া চৌধুরী

ভোটের জন্য আমাদের বহু লোক জীবন উৎসর্গ করেছে ॥ মতিয়া চৌধুরী

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পঞ্চম ধাপে শেরপুরের নকলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে শুরু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে উপজেলার একটি পৌরসভাসহ ৯টি ইউনিয়নের ৬৭টি ভোট কেন্দ্রে ওই ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিকেল ৫টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে। নির্বাচনে ৬৭ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৩৭৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও ৭৫০ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করছেন। এ উপজেলায় ভোটার রয়েছেন ১ লক্ষ ৫১ হাজার ৫৩৫ জন।

এদিকে সকাল ১০টায় বানেশ্বর্দী ইউনিয়নের বানেশ্বর্দী উত্তর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন সাবেক কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী এমপি। ভোট প্রদান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ভোটের জন্য জীবন দিয়েছি আমরা, ভোট দেব না তো কি করব? ভোটের জন্য আমাদের বহু লোক জীবন উৎসর্গ করেছে, ৩০ লক্ষ শহীদের জীবন গেছে। কাজেই সেই ভোটাধিকার প্রয়োগ করব না, সেই রাজনীতি করি না। মুনাফেক না আমরা। এদিন সকাল পৌণে ১০টায় তিনি একটি যাত্রীবাহী বাসযোগে শেরপুরের নকলায় পৌঁছে ভোট প্রদান করেই ফের ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি।

এদিকে সরেজমিনে উপজেলার কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম। মাউরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ কেন্দ্রে ভোটার রয়েছেন ১ হাজার ৬৩৮ জন। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ এ কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন। নকলা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সৈয়দ রায়হানুল হায়দার বলেন, এ কেন্দ্রে ভোটার রয়েছে ২ হাজার ৬০ জন। এখন ভোটার উপস্থিতি কম হলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে তা বাড়তে পারে। এ কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ মোঃ বোরহান উদ্দিন।

জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ শুকুর মাহমুদ মিঞা জানান, এখন পর্যন্ত সুষ্ঠু পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনে প্রতি কেন্দ্রে জুডিসিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের পাশাপাশি পর্যাপ্ত পুলিশ, র্যাব, আনসারসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর স্ট্রাইকিং ফোর্স কাজ করছে।

উল্লেখ্য, এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ নৌকা এবং দলের বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ মোঃ বোরহান উদ্দিন লড়ছেন মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। এছাড়া ভাইস-চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সারোয়ার আলম তালুকদার চশমা এবং অপর প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম সোহেল তালা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। আর মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা উম্মে কুলসুম রেনু প্রজাপতি, ফরিদা ইয়াসমিন কলসি ও লাকি আক্তার ফুটবল প্রতীক নিয়ে লড়ছেন।