১১ ডিসেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেয়ারবাজারে সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে

শেয়ারবাজারে  সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ২০১৯-২০ অর্থবছরের ঘোষিত বাজেটে কোম্পানির রিজার্ভে ট্যাক্স প্রস্তাবের পরবর্তী দুই দিন পতন হলেও মঙ্গলবার উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। একইসঙ্গে বেড়েছে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন কিছুটা কমেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, আগের দুই দিনের ধারাবাহিকতা কাটিয়ে সকাল থেকেই প্রধানবাজারের সূচকের উত্থানে লেনদেন শুরু হয়। দিনশেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৪০০ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৮ ও ডিএসই-৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ২৩২ ও ১ হাজার ৮৯৫ পয়েন্টে। এদিন ডিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন ৭ কোটি টাকা কমেছে। ৫২৮ কোটি ৮২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫৩৫ কোটি টাকার।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪৯টি কোম্পানির মধ্যে ১৯৬টির বা ৫৬ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১০৫টি বা ৩০ শতাংশ কোম্পানির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টি বা ১৪ শতাংশ কোম্পানির।

ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের। এদিন কোম্পানিটির ১৮ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা নূরানী ডাইংয়ের ১৪ কোটি ৪১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে এবং ১৪ কোটি ২৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে আসে জেএমআই সিরিঞ্জ। ডিএসইতে লেনদেনে উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে : ড্রাগন সোয়েটার, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, নিউ লাইন ক্লোথিংস, একসে ট্রিমস, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং প্যাসিফিক ডেনিম।

ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৫৬ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। শেয়ার দর সবচেয়ে বেশি বেড়েছে ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের।

জানা গেছে, সোমবার ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ছিল ৪৯.৯০ টাকায়। মঙ্গলবার লেনদেন শেষে এর দর দাঁড়ায় ৫৪.৮০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটি শেয়ার দর ৪.৯০ টাকা বা ৯.৮১ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সে ডিএসইর দরবৃদ্ধির তালিকার শীর্ষে উঠে আসে। ডিএসইতে দরবৃদ্ধির তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে নূরানী ডাইংয়ের ৯.৭৪ শতাংশ, জাহিনটেক্সের ৯.০৯ শতাংশ, মাইডাস ফাইন্যান্সিংয়ের ৮.৬৭ শতাংশ, মালেক স্পিনিংয়ের ৮.০২ শতাংশ, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্সের ৭.৭৫ শতাংশ, এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের ৭.৩০ শতাংশ, রিজেন্ট টেক্সটাইলের ৭.১০ শতাংশ, তসরিফার ৬.১৫ শতাংশ এবং সায়হাম টেক্সটাইলের শেয়ার দর ৬.১০ শশতাংশ বেড়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৭৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৫৬৪ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৫৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৫৮টির, কমেছে ৭৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টির দর। ৪২ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ