২৩ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

১৪ ব্যাংকের ১১ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা ঘাটতি

১৪ ব্যাংকের ১১ হাজার ৬৫২  কোটি টাকা ঘাটতি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্যাংক খাতে মন্দ বা খেলাপি ঋণের পরিমাণ বাড়ছেই। ফলে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে নিরাপত্তা সঞ্চিতি বা প্রভিশন ঘাটতিও। চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে ঝুঁকিপূর্ণ ঋণের বিপরীতে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সঞ্চিতি (প্রভিশন) সংরক্ষণে ব্যর্থ হয়েছে দেশের সরকারি ও বেসরকারি খাতের ১৪টি ব্যাংক। এসব ব্যাংকের মোট প্রভিশন ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা। যার বেশির ভাগই রাষ্ট্রায়ত্ত চার ব্যাংকের। গত ডিসেম্বর শেষে এসব ব্যাংকের ঘাটতি ছিল ৯ হাজার ৫০৪ কোটি টাকা। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

আমানতকারীদের সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে ঋণের শ্রেণিমান বিবেচনায় ব্যাংকগুলোকে নির্ধারিত হারে প্রভিশন রাখতে হয়। সাধারণ ঋণের বিপরীতে দশমিক ২৫ শতাংশ থেকে শুরু করে ৫ শতাংশ পর্যন্ত প্রভিশন রাখার নিয়ম রয়েছে। আর যথাসময়ে আদায় না হওয়া নিম্নমান, সন্দেহজনক এবং মন্দ বা ক্ষতিমানে শ্রেণিকৃত ঋণের বিপরীতে যথক্রমে ২০, ৫০ ও ১০০ ভাগ হারে প্রভিশন রাখতে হয়। ব্যাংকগুলোর মুনাফা থেকে এ অর্থ রাখতে হয়। যে ব্যাংকের খেলাপি ঋণ যত বাড়ে, প্রভিশন সংরক্ষণের প্রয়োজনীয়তা তত বেড়ে যায়। গত ডিসেম্বরের তুলনায় মার্চে ব্যাংক খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা বেড়ে ১ লাখ ১০ হাজার ৮৭৩ কোটি টাকায় উঠেছে। গত ডিসেম্বর শেষে খেলাপি ঋণ ছিল ৯৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকা।

এই মাত্রা পাওয়া