১৭ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উ. কোরিয়ার সঙ্গে চীনের বন্ধুত্ব ‘অফুরন্ত’ ॥ শি জিনপিং

উ. কোরিয়ার সঙ্গে চীনের বন্ধুত্ব ‘অফুরন্ত’ ॥  শি জিনপিং

অনলাইন ডেস্ক ॥ উত্তর কোরিয়া সফরে যাওয়ার মাত্র একদিন আগে আজ বুধবার চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং দেশটির সরকারি সংবাদপত্রে বিরল এক লিখিত মন্তব্যে বলেছেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বেইজিংয়ের বন্ধুত্ব ‘অফুরন্ত’। খবর এএফপি’র।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের আমন্ত্রণে শি বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার পিয়ংইয়ং সফরে যাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে গত ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় সম্মেলন কোন চুক্তি ছাড়াই ভেঙ্গে যাওয়ায় কিম ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে পরমাণু সংক্রান্ত আলোচনায় ভাটা পড়ার পর তিনি এ সফরে যাচ্ছেন।

নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার বিনিময়ে পিয়ংইয়ং তাদের পরমাণু কর্মসূচি পরিত্যাগে আগ্রহী হবে সে ব্যাপারে তারা সম্মত হতে ব্যর্থ হওয়ায় দ্বিতীয় সম্মেলন ভেঙ্গে যায়।

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসিন ওয়ার্কার্স পার্টির সরকারি মুখপত্র রোদং সিনমুনে ওই মন্তব্য প্রতিবেদনে শি বলেন, পূর্ব এশীয় অঞ্চলে ‘স্থায়ী স্থিতিশীলতা’ নিশ্চিত করতে বেইজিং পিয়ংইয়ংয়ের সাথে যৌথ পরিকল্পনা প্রণয়নে আগ্রহী।

তিনি বলেন, ‘আমরা কোরীয় উপদ্বীপ প্রশ্নে আলোচনা এগিয়ে নিতে উত্তর কোরিয়া ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য পক্ষের সাথে যোগাযোগ ও সহযোগিতা জোরদার করার মাধ্যমে আঞ্চলিক শান্তি, স্থিতিশীলতা, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির ব্যাপারে সক্রিয় অবদান রাখবো।’

উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি প্রশ্নে পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের ধারাবাহিক অবরোধ আরোপকে বেইজিং সমর্থন জানানোয় দেশ দু’টির মধ্যে সম্পর্কের অবনতির পর তারা গত বছর তাদের সম্পর্কোন্নয়নে কাজ করে।

উত্তর কোরিয়ার গুরুত্বপূর্ণ কূটনৈতিক মিত্র এবং প্রধান ত্রাণ সরবরাহকারী দেশের নেতার এ সফর দীর্ঘ প্রতীক্ষিত এবং শি’র সঙ্গে বৈঠকের জন্য কিম চারবার চীন সফরের পর তিনি দীর্ঘ প্রত্যাশিত এ সফরে যাচ্ছেন।

২০০৫ সালে হু জিনতাওয়ের পর চীনের কোন প্রেসিডেন্টের এটি হবে প্রথম পিয়ংইয়ং সফর।

ওই প্রতিবেদনে শি বেইজিং-পিয়ংইয়ং সম্পর্কের এ বছরের ৭০ তম বার্ষিকী পালনের ব্যাপারটিকে গুরুত্ব দিয়ে বলেন, সময় যত গড়াবে তাদের বন্ধুত্ব তত জোরদার হবে।