১৮ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পায়রা বিদ্যুত কেন্দ্রের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে

পায়রা বিদ্যুত কেন্দ্রের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া ॥ পায়রা তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের নিহত শ্রমিক সাবিন্দ্র দাসের লাশ গুম করার গুজবে শ্রমিকদের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনায় শ্রমিক চীনা নাগরিক জাং ইয়ান ফাং (২৬) নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও চীনা শ্রমিক ক্সুগান (৫৪), লিন ইউং লিন (৪০), মুজাং হাং (৩৫), জাহাং সেনং (৬০)। আহত বাংলাদেশী শ্রমিকরা হচ্ছেন মো. আলতাফ হোসেন (৪৪), মো. মোস্তাফিজুর রহমান (৪৮) এবং মাহবুব আলম (২৫)। গুরুতর জখম হয়েছেন বিসিপিসিএল এর সিকিউরিটি অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান ও নির্বাহী প্রকৌশলী রেজওয়ান ইকবাল খান। আহতদের মঙ্গলবার রাতে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ভোররাতে ওই বিদেশী শ্রমিক মারা গেছেন। শেবাচিম হাসপাতালের চিকিৎসব মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসন এদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। আহত অন্যান্যরা চিকিৎসাধীন রয়েছে। এদিকে রাতে জেলা প্রশাসন এবং র্যাব, আর্মপুলিশ যৌথ ভাবে বিদ্যুত কেন্দ্রের ভিতরের বিক্ষুদ্ধ সকল শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়েছে বলে কলাপাড়া থানা পুলিশ নিশ্চিত করেছে। এজন্য টিয়ারসেল নিক্ষেপ করতে হয়েছে। হামলাকারীরা বিদ্যুত প্লান্টের প্রধান গেটসহ দেয়াল ভাংচুর করে। অফিসের ল্যাপটপসহ মালামাল তছনছ করে দেয়। প্রায় নয় ঘন্টা চলে শ্রমিকদের সঙ্গে সংঘাত। এর সঙ্গে স্থানীয় কোন চক্র জড়িত কিনা তা ক্ষতিয়ে দেখছে প্রশাসনের বিভিন্ন স্তর।

নিহত বাঙালী শ্রমিক সাবিন্দ্র দাসের লাশ ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে বলে কলাপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুর রহমান নিশ্চিত করেছেন। এরিপোর্ট লেখাপর্যন্ত আজ বুধবার ১২টায় বিদ্যুত কেন্দ্রের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে বিদ্যুত ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নছরুল হামিদ বিপু পায়রা বিদ্যুত কেন্দ্র এলাকায় দুপুরে এসে পৌছেছেন। তিনি পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ বিসিবিসিএলএর কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।