১৭ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলাপাড়ায় তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রে অপ্রীতিকর ঘটনার জের, চীনা নাগরিকের মৃত্যু

  • পাঁচজনকে ঢাকায় প্রেরণ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নিশানবাড়িয়ায় ১৩২০ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রে কর্মরত ঝাং ইয়াং ফাং (২৬) নামের এক চীনা নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি চীনের বাসিন্দা চাং-এর পুত্র এবং তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের প্রজেক্টে ইলেক্ট্রিশিয়ান পদে কর্মরত ছিলেন। বুধবার সকালে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ নিয়ে কলাপাড়ার ওই নির্মাণাধীন বিদ্যুত কেন্দ্রে সৃষ্ট অপ্রীতিকর ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হলো। যার মধ্যে সাবিন্দ্র দাস (৩২) নামের এক বাংলাদেশী শ্রমিকও রয়েছে। নিশ্চত করে শেবাচিম হাসপাতালের পডাঃ মোঃ বা হোসেন বলেন, কলাপাড়া থেকে মঙ্গলবার রাতে সেখানে কর্মরত ছয়জন চীনা নাগও দুইজন বাংলাদেশী শ্রমিককে হাসপাতালে র্ভ করা হয়। এর মধ্যে মাথায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে ঝাং ইয়াং ফাংয়ের মৃত্যু হয়েছে। বাকি পাঁচজন চীনা নাগরিককে বুধবার সকালে উন্নত চিজন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস বলেন, নিশানবাড়িয়ায় ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুত কেন্দ্রে দুর্ঘটনায় বাঙালী এক শ্রমিক ওপর থেকে পরে মারা যায়। যা নিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় আহত ছয়জন চীনা ও দুইজন বাঙালী শ্রমিককে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা কলাপাড়া থেকে জানান, ধানখালী ইউনিয়নে নির্মনাধীন ১৩২০ মেগাওয়াট পায়রা তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের পরিস্থিতি প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসছে। বুধবার দুপুরে হেলিকপ্টারযোগে বিদ্যুত ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু তাপ বিদ্যুত কেন্দ্র এলাকা পরিদর্শন করেন। বিশেষ করে বাংলা ক্যান্টিন এলাকা পরিদর্শন করে তিনি শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি বিদ্যুত কেন্দ্রের কর্মকর্তাসহ প্রশাসনের সঙ্গে জরুরী বৈঠক করে সার্বিক পরিস্থিতি অবগত হয়েছেন।