১৯ জুন ২০১৯

সুখের প্রদীপ

সন্তান। মা বাবার অতি আদরের, নিঃস্বার্থ ভালবাসার অপর নাম। আধো আধো বোলে কথা বলে, গুটি গুটি পায়ে হেঁটে ধীরে ধীরে বড় হয়ে ওঠে। বাবা মায়ের স্বপ্ন থাকে সন্তানকে মানুষের মতো মানুষ করার। সে স্বপ্নকে বাস্তব করতে হলে প্রত্যেক বাবা মাকে অবশ্যই সচেতন হতে হবে। বিশেষ করে কিশোর বয়সে। সন্তানের বন্ধুমহলে নজর রাখা খুবই জরুরী। কিশোর অপরাধ আমাদের সমাজে একটি ব্যাধির মতো ছড়িয়ে পড়েছে। প্রত্যেক মা বাবাকে এ বিষয়ে অবশ্যই সচেতন হতে হবে। প্রযুক্তির এই যুগে যোগাযোগ খুব সহজ। যদি সে কোন ধরনের অসৎ সঙ্গে পড়ে প্রথমেই তাকে কঠোর শাসন না করে বোঝানো উচিত সে যেন ওই সঙ্গ ত্যাগ করে। এ বয়সে মাদকের দিকেই সাধারণত বেশি ঝোঁক দেখা যায়। এই নিষিদ্ধ দ্রব্য সেবনের টাকা যোগাড় করতে গিয়ে জড়িয়ে পড়ে আরও গুরুতর অপরাধ মারামারিসহ, হাইজ্যাক এমনকি খুনের মতো অপরাধেও। সন্তান যত বড়ই হোক, মা বাবার চোখের দৃষ্টি ঠিকই ধরে নিতে পারে তার চালচলন থেকে সে কোন পথে হাঁটছে। পৃথিবীতে এমন কোন সমস্যা নেই যা সমাধানের পথ নিয়ে আসে না। তাই মা বাবার উচিত সন্তানকে সময় দেয়া, তার পাশে থেকে তাকে জীবনের ভাল খারাপ দিকগুলো দেখানো। একজন সুশিক্ষিত, স্বশিক্ষিত সন্তান মা বাবার সুখের প্রদীপ হয়ে জ্বলে। সন্তানের সাফল্যে মা বাবার মন যেমন খুশিতে ভরে ওঠে ঠিক তেমনি তার ব্যর্থতার কষ্টও তাদের ব্যথিত করে। প্রত্যেকটা সন্তান হোক মা বাবার চোখের আলো। দেশের গর্ব। জাতির পথ নির্দেশক।

পাঁচলাইশ, চট্টগ্রাম থেকে