১৭ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উবাচ

তাহলে এত আক্ষেপ কেন?

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেয়া থেকে কাউকে আটকাতে পারেননি। উল্টো নিজে শপথ না নিয়ে ভুল করার জন্য আক্ষেপও করেছেন। আচ্ছা, যদি এই সংসদ অবৈধ হয় তাহলে সেখানে যাওয়ার জন্য এত আক্ষেপ কেন। সেখানে যারা যাবেন তারা কি তাহলে বৈধ। বিএনপি তো চেষ্টা করে দেখেছে তার নির্বাচিত সংসদদের শপথ নেয়া থেকে বিরত করতে পারেনি। বর্তমান একাদশ সংসদকে তারা স্বীকৃতি দেন না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, এটা অবৈধ সংসদ। এ সংসদ জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি। তিনি বলেন, আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আছি। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। জনগণের শক্তির কাছে কোন শক্তি টিকতে পারে না। সেই শক্তি অর্জন করতে হবে আমাদের। আমরা সঠিক পথে আছি। আসলেই কি তাই- কেউ কি বিএনপির সঙ্গে আছেন?

রিজভীর নতুন আবিষ্কার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশে নাকি সরকার পরিবর্তনের বাতাস বইতে শুরু করেছে। সম্প্রতি এই খবর প্রকাশ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সম্প্রতি দলের ছোট ভাইরা তার আবাসস্থল বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ফ্যানের বাতাস বন্ধ করে দিয়েছিলেন। ছোট ভাইদের এহেন কর্মকা-ের মধ্যে বিব্রত হয়ে দিনকয়েক তিনি কথাই বলতে পারেননি। এর পর হঠাৎ করে বুঝতে পারলেন দেশে সরকার পরিবর্তনের বাতাস বইছে। যেহেতু নিজের ঘরের বাতাস বন্ধ এজন্য সরকার পরিবর্তনের এই বাতাসে গা জুড়িয়ে তিনি জানালেন, দেশবাসীর মিলিত মিছিল সরকার পতনের দিকে ধেয়ে আসছে। এ কারণে সরকারের ভেতর থেকে শঙ্কা দূরীভূত হচ্ছে না। কিন্তু আসলেই কি তাই!

ফোরটোয়েন্টি ভাবতে পারে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বাজেট নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন, তাতে মানুষ তাকে প্রতারক রাজনীতিবিদ ভেবে বসতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, আমি মাহমুদুর রহমান মান্নার কাছে এ ধরনের অশোভন বক্তব্য কখনও আশা করিনি। সমালোচনার মধ্যেও একটি ভদ্রতা-ভব্যতা থাকতে হয়। জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে মান্না বলেছিলেন, এত বড় ফোরটোয়েন্টি বাজেট কম আছে। সবই হচ্ছে বড়লোকদের ধান্ধা। ধনী হওয়ার প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ কিন্তু তৃতীয়। তথ্যমন্ত্রী বলেন, সমালোচনা থাকবে। আমরা একটি যুক্তিভিত্তিক, তর্কভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থায় বসবাস করি। শেখ হাসিনার সরকার সমালোচনাকে সমাদৃত করার সংস্কৃতি লালন করে। এভাবে সমালোচনা না করে অর্থবহ সমালোচনা করুন। অর্থবহ সমালোচনা করে যুক্তি এবং তর্কের ভিত্তিতে দেশটিকে এগিয়ে নিয়ে যাই। আর রাজনৈতিক সমালোচনা করার সময় ভদ্রতা-ভব্যতা যেন আমরা সবাই রক্ষা করি।