১৭ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঝলক

গোল্ডেন জায়ান্ট বার্গার

জাপানের রাজধানী টোকিওর গ্র্যান্ড হায়াতের দ্য ওক ডোর স্টেকহাউস রেস্তরাঁর গোল্ডেন জায়ান্ট বার্গারের দাম এক লাখ ইয়েন (এক হাজার মার্কিন ডলার)। বার্গারটি তৈরি করেছেন মার্কিন শেফ প্যাট্রিক শিমাডা। রেস্তরাঁর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বার্গারটি বিশেষভাবে প্রস্তুত। এতে এক কেজি গরুর মাংস বিশেষভাবে প্রস্তুত করে ব্যবহৃত হয়েছে। সঙ্গে আরও যুক্ত করা হয়েছে, লেটুস, টমেটো, পেঁয়াজ, জাপানী চিডার পনির, জাপানের ওয়াগুউ গরুর মাংসের স্লাইস, ফোয়ি গ্রাস (বিশেষভাবে পালন করা হাঁসের কলিজা), টাটকা কালো ট্রাফলম, সোনালি বান, ভাজা আলু। ব্যবহৃত সসগুলোও বিশেষভাবে তৈরি। প্রস্তুত প্রণালিও বিশেষভাবে করা। তাতে সোনালি বানটিকে মাঝামাঝি কেটে দুটি স্লাইস করা হয়েছে। নিচের অংশটিকে বেস হিসেবে ব্যবহার করা হয়। সেটিকে সেঁকে নিয়ে তার ওপর গার্লিক স্যাফ্রন সস দেয়া হয়। এর ওপর লেটুস ও টমেটোর স্লাইসের ওপর এককেজি ওজনের মাংসের টুকরোটি রাখা হয়। তার ওপর জাপানী চিডার পনির। পনিরের ওপরে দেয়া হয় ফোয়ি গ্রাস, ট্রাফলস, জাপানী ওয়াগুউ গরুর মাংসের স্লাইস ও অন্যান্য উপকরণগুলো সাজিয়ে তার ওপর সোনালি বানের অপর টুকরোটি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করা হয় বার্গারটি। -টোকিও নিউজ

নিলামে ভ্যান গগের অস্ত্র

বিখ্যাত চিত্রশিল্পী ভ্যান গগের অস্ত্র ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের এক নিলাম প্রতিষ্ঠান নিলামে তুলেছে। অস্ত্রটি লিফঁসু রিভলভার নামে পরিচিত। নিলাম প্রতিষ্ঠানের ধারণা ছিল, লিফঁসু রিভলবার ৬০ হাজার ইউরোয় (৬৭ হাজার মার্কিন ডলার) বিক্রি হতে পারে। তবে বুধবার সেই আগ্নেয়াস্ত্র বিক্রি হলো, এক লাখ ৮২ হাজার মার্কিন ডলারে। শেষবার এই রিভলভারটি ব্যবহৃত হয়েছিল ১৮৯০ সালে। শিল্পী ভিনসেন্ট ভ্যান গগ ওই রিভলভার ব্যবহার করেই আত্মহত্যা করেছিলেন। প্যারিসের উত্তরাঞ্চলে একটি গ্রামের ক্ষেতে পাওয়া গিয়েছিল ভ্যান গগের মৃতদেহ। ৭৫ বছর মাটি চাপা থাকার পর সেই জমিতেই উদ্ধার হয় ওই লিফঁসু রিভলবার। ১৯৬৫ সালে রিভলভারটি উদ্ধার করেন এক কৃষক। ১৮৯০ সালের ঘটনার দিন ভ্যান গগ লিফঁসু রিভলভারটি ধার নিয়েছিলেন তারই সরাইখানার মালিকের কাছ থেকে। ১৯৬৫ সালে তাই রিভলভারটি উদ্ধার করার পর তার পরিবারকেই ফিরিয়ে দেয়া হয়। এবার সরাইখানার মালিকের সেই উত্তরসূরিদের পক্ষ থেকেই নিলামে তোলা হয় অস্ত্রটি। -এবিসি নিউজ