২৬ জুন ২০১৯

নাট্যশালায় দেশ-বিদেশের দুই নাটক প্রদর্শনী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকার নাট্যপাড়া এখন দারুণ সরগরম। শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার পাশাপাশি বেইলি রোডের মহিলা সমিতি মিলনায়তনে প্রতিদিনই মঞ্চস্থ হচ্ছে নাটক। প্রতিদিন একসঙ্গে বেশ কটি নাট্য প্রদর্শনী হওয়ায় দর্শকরাও পাচ্ছেন মানসম্পন্ন নাটক বেছে নেয়ার সুযোগ। পুরনো নাটকের সঙ্গে আবার প্রায়শই মঞ্চে আসছে নতুন নাটক। সব মিলিয়ে দর্শকদের জন্য চলছে নাটক দেখার সুসসময়। সেই সুবাদে মঙ্গলবারও দর্শকরা দেশ-বিদেশের দুটি নাটক উপভোগ করেছেন। এদিন সন্ধ্যায় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে মঞ্চস্থ হয়েছে আরণ্যক নাট্যদলের দর্শকনন্দিত প্রযোজনা ‘রাঢ়াঙ’। অন্যদিকে নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে ভিয়েতনামের নাটক দেখার সুযোগটি হাতছাড়া করেননি অনেকেই। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসবে মঞ্চস্থ হয়েছে দেশটির লে নখ থিয়েটারের নাটক ‘কিম তু’।

সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় আয়োজিত আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসবের ষষ্ঠ দিনের সন্ধ্যায় পরিবেশিত হয় কিম তু। নাটকটির রচয়িতা প্রখ্যাত চীনা নাট্যকার ক্যাও ইও। প্রযোজনাটির নির্দেশনা দিয়েছেন হ্যানয় একাডেমি অব ফিল্ম এ্যান্ড আটের শিক্ষক ড. সুয়া সু পং। নাটকটি উপযোজন করা হয়েছে চীনা শেক্সপিয়ারখ্যাত বিংশ শতাব্দীর অন্যতম চৈনিক কাওযুর দ্য ওয়াইল্ডনেস থেকে। প্রযোজনাটিতে উঠে এসেছে প্রেম, প্রতিশোধ, পরিত্রাণ এবং মানব-দৃয়ের গহনে ভাল ও মন্দের দ্বন্দ্ব নিয়ে একটি অন্ধকারাচ্ছন্ন ও বিক্ষুব্ধ ট্র্যাজেডির গল্প। দ্য ওয়াইল্ডারনেস শেক্সপিয়ারের ট্রাজিক নাটকের সকল উপাদান ধারণ করলেও তাতে সংযুক্ত হয়েছে টিপিকাল প্রাচ্য মূল্যবোধ।

আরণ্যকের রাঢ়াঙ নাটকটি রচনার পাশাপাশি নির্দেশনা দিয়েছেন মামুনুর রশীদ। প্রযোজনাটিতে আদিবাসী সাঁওতাল সম্প্রদায়ের ঘাত-প্রতিঘাত, হাসি-কান্না, জন্মভূমি থেকে উচ্ছেদ ও হত্যার নির্মম চিত্র ফুটে উঠেছে। নাটকের কাহিনী আবর্তিত হয়েছে, ২০০০ সালে নওগাঁর সাঁওতালদের ভূমি বিদ্রোহ নিয়ে। এ বিদ্রোহে নেতৃত্ব দেন তরুণ আলফ্রেড সরেন। তার নেতৃত্বে সাঁওতালদের সে বিদ্রোহ দেশব্যাপী আলোড়ন তুলেছিল। বিদ্রোহ দমাতে না পেরে জোতদারের দল হত্যা করে আলফ্রেড সরেনকে। তার সেই আত্মদানের গল্প মিশে আছে নাটকের ঘটনা প্রবাহে। সব মিলিয়ে সাঁওতালদের দীর্ঘ সংগ্রামের বিশাল উত্তরাধিকারকে মেলে ধরার প্রয়াস রাঢ়াঙ। নাটকে আলফ্রেড সরেনের চরিত্রে অভিনয় করছেন মাসুদুজ্জামান মাসুদ। অন্যান্য চরিত্রের রূপ দিয়েছেন মামুনুর রশীদ, আ খ ম হাসান, তমালিকা কর্মকারসহ আরণ্যকের অভিনয় শিল্পীরা।

ফুুরফুরে আমেজ বয়ে নাট্যাঙ্গনে আজ বুধবার রয়েছে দুটি চমৎকার প্রদর্শনী। এদিন আন্তর্জাতিক সমাপনী দিনে নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে আলোকরশ্মির ব্যবহারে রাশিয়ার নিকোলাই জাইকভ থিয়েটার উপস্থাপন করবে ‘লাইট পাপেট শো’। অন্যদিকে নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে নাট্যদল বটতলার দর্শকনন্দিত প্রযোজনা ‘খনা’র সত্তরতম দেখবেন দর্শকরা। আগামী শুক্রবার মঞ্চে আসছে পালাকারের নতুন প্রযোজনা ‘রং লেগেছে’। এদিন স্টুডিও থিয়েটার হলে আমিনুর রহমান মুকুল নির্দেশিত রোমান্টিক কমেডি ধারার উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হবে।