১৭ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

১০ রিক্রুটিং এজেন্সির জোট বিষয়ে তদন্ত প্রতিবেদন জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠাতে ১০ রিক্রুটিং এজেন্সির জোট গঠনের বিষয়টি তদন্তে আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির প্রতিবেদনে কী রয়েছে তা জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট। ২০১০ সাল পর্যন্ত সুপ্রীমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে বিচারাধীন থাকা ফৌজদারি রিভিশন ও বিচারিক আদালতের মামলা বাতিল চাওয়া আবেদনের তালিকা তৈরি করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তিন সপ্তাহের মধ্যে রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে ওই তালিকা প্রধান বিচারপতির কাছে দাখিল করতে বলা হয়েছে। অন্যদিকে প্রজ্ঞাপন ছাড়া সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে স্থাপিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করায় ভাইস চ্যান্সেলরসহ (ভিসি) চারজনকে ছয় মাসের জন্য সব কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চগুলো এ আদেশ প্রদান করেছে। অন্যদিকে বাংলাদেশ রেলওয়ের যাত্রীদের যাতায়াত সহজলভ্য, আধুনিক ও ত্রুটিমুক্ত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি সংস্কারের নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়েছে। ১০ রিক্রুটিং এজেন্সির জোট গঠনের বিষয়টি তদন্তে আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির প্রতিবেদনে কী রয়েছে তা জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট। আগামী ১৮ জুলাইয়ের মধ্যে এ প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এ সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মোঃ আশরাফুল ইসলামের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ব্যারিস্টার আখতার ইমাম। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার রাশনা ইমাম।

পুরনো রিভিশন মামলার তালিকা করতে নির্দেশ

২০১০ সাল পর্যন্ত সুপ্রীমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে বিচারাধীন থাকা ফৌজদারি রিভিশন ও বিচারিক আদালতের মামলা বাতিল চাওয়া আবেদনের তালিকা তৈরি করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তিন সপ্তাহের মধ্যে রেজিস্ট্রারের মাধ্যমে ওই তালিকা প্রধান বিচারপতির কাছে দাখিল করতে বলা হয়েছে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মামলার রায় ঘোষণাকালে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেয়।

ঝুঁকিপূর্ণ রেললাইন ত্রুটিমুক্ত চেয়ে রিট

বাংলাদেশ রেলওয়ের যাত্রীদের যাতায়াত সহজলভ্য, আধুনিক ও ত্রুটিমুক্ত করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি সংস্কারের নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ রেললাইন চিহ্নিত করে তা দ্রুত সময়ের মধ্যে সংস্কারের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে সারাদেশে রেললাইনের আধুনিয়কায়ন, সংস্কার এবং সংরক্ষণে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারির নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।