২৭ জুন ২০১৯

আজ জিতলে সেমিফাইনালের টিকিট পাকা করে ফেলবে ভারত

আজ জিতলে সেমিফাইনালের টিকিট পাকা করে ফেলবে ভারত

অনলাইন ডেস্ক ॥ আর কয়েক ঘণ্টা পরই ম্যাঞ্চেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ। এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপে ৩৩টি ম্যাচ হয়ে যাওয়ার পর এক দিকে যেখানে ভারত এখনও অপরাজিত অবস্থায় পয়েন্ট টেবিলের তিন নম্বরে রয়েছে, সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ মাত্র একটি ম্যাচ জিতে টেবিলের নীচের দিক থেকে তিন নম্বরে অবস্থান করছে।

ফলে এক দিকে যেমন ভারত এই ম্যাচটি জিতলে কার্যত সেমিফাইনালের টিকিট পাকা করে ফেলবে, তেমনই সেমিফাইনালের আশা এক রকম শেষ হয়ে যাওয়ার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে এটা একটা সম্মান রক্ষার ম্যাচ হতে চলেছে।

অনেক বিশেষজ্ঞের মতে, এই মুহূর্তে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হারানোর কিছু নেই। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ এমন একটা দল, যারা কোন সময় কী করে বসবে কেউ জানে না। অন্য দিকে ব্যাটিং, বোলিং আর ফিল্ডিংয়ে দুর্দান্ত পারফর্ম করলেও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধেগত ম্যাচে ভারতের একটি দুর্বল জায়গা সবার নজরে চলে এসেছে। আর সেটি হল ভারতীয় ব্যাটিংয়ের দুর্বল মিডল অর্ডার।

টপ অর্ডারের তিন জন আউট হয়ে গেলেই চাপ নিতে পারছে না মিডল অর্ডার। ধরে খেলার চেষ্টা করতে গিয়ে এতটাই বেশি ডট বল খেলে ফেলছেন, যে শেষে গিয়ে ভাল টার্গেট সেট করার মতো বলই পাওয়া যাচ্ছে না।

ব্যাট হাতে তেমন কার্যকর না হলেও ম্যাঞ্চেস্টারে অবশ্য বিজয় শঙ্করের খেলার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে ঋষভ পন্থকে আরও কিছুটা অপেক্ষা করতে হতে পারে। তবে কারও মতে, আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ঋষভকে দেখে নিতেও পারে ভারত।

তবে ভারতীয় দলের প্রধান সমস্যা মহেন্দ্র সিংহ ধোনির স্ট্রাইক রেট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের তেমন কোনও ভাল স্পিনার না থাকার সত্ত্বেও তাঁকে নেটে বেশি করে সুইপ শট প্রাকটিস করতে দেখা যায়। অবশ্যই যে তা এই টুর্নামেন্টের বাকি ম্যাচগুলির কথা মাথায় রেখে তা বলা বাকি রাখে না।ধোনির দিকে আজ নজর থাকবে সবারই।

এ বার নজর দেওয়া যাক ভারতীয় মিডল অর্ডারের অন্যতম স্তম্ভ কেদার যাদবের দিকে। তিনি প্রথমের ম্যাচগুলিতে ব্যাটিং করার তেমন সুযোগ না পেলেও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে গত ম্যাচে একটি সম্মানজনক লক্ষ্যমাত্রা তৈরি করতে অন্যতম প্রধান ভূমিকা নেন। এক দিকে একের পর এক উইকেট পরে গেলেও ২২ গজে অনেকটা সময় কাটিয়ে ব্যক্তিগত ৫২ রানে আউট হন তিনি। তাই সেট হওয়ার পর বড় রান না করতে পাড়ায় সমালোচকদের নিশানা থেকে বাদ যাননি তিনিও। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে তাঁর এবং ধোনির পার্টনারশিপে রান না ওঠার বিষয়টিও। নিজেকে প্রমাণ করতে আজ ভাল খেলতেই হবে কেদারকে।

ইতিমধ্যেই এই ওল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ এই বিশ্বকাপে একটি করে ম্যাচ খেলেছে। যেখানে ভারত ৮৯ রানের বড় ব্যাবধানে পাকিস্তানকে গুঁড়িয়ে দিলেওনিউজিল্যান্ডকে করা টক্কর দিয়েও মাত্র ৫ রানের জন্য ম্যাচ হাতছাড়া হয় ক্যারিবিয়ানদের। সুতরাং পিচ ও স্টেডিয়ামের ধরন সম্পর্কে উভয় দলই যথেষ্ট অবগত। অনেক বিশেষজ্ঞই আবার পিচ ও আবহাওয়ার দেখে বড় রানের ম্যাচ হওয়ার ভবিষ্যদ্বাণী করছেন। সুতরাং আজকের ম্যাচে যে বিনোদনের খামতি থাকবে না তা আঁচ করাই যায়।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা