২৭ জুন ২০১৯

২৬ লাখ যুবক ও যুব মহিলাকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে ॥ ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

  ২৬ লাখ যুবক ও যুব মহিলাকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে ॥ ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

সংসদ রিপোর্টার ॥ বেকারত্ব দূরীকরণে ২০০৯ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত গত ১০ বছরে প্রায় সাড়ে ২৬ লাখ যুবক ও যুব মহিলাকে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। যুবকদের বেকারাত্ব দূরীকরণ ও যুবসমাজকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করার লক্ষ্যে সরকার যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদানসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে।

স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারের প্রশ্নের লিখিত জবাবে এ তথ্য জানান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল।

মন্ত্রী জানান, যুব উন্নয়ন অধিদফতর বেকার যুবদেরকে মানবসম্পদে পরিণত করার লক্ষ্যে প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক ৮২টি ট্রেডে দেশব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ২০০৯-১৯ সালের মার্চ পর্যন্ত এ প্রশিক্ষণের আওতায় সর্বমোট ২৬ লাখ ৪৯ হাজার ৩৫৩ জনকে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

জাতীয় পার্টির পীর ফজলুল রহমানের প্রশ্নের লিখিথ জবাবে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী রাসেল জানান, কক্সবাজারে শেখ কামাল আন্তজার্তিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও আন্তজার্তিক ফুটবল স্টেডিয়াম এবং মানিকগঞ্জ জেলায় আন্তজার্তিক মানের ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। এছাড়া ঢাকার পূর্বাচলে শেখ হাসিনা আন্তজার্তিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম কমপ্লেক্স নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, সরকার ২০০৯ সাল হতে যুবদের বেকারত্ব দূরীকরণ ও যুবসমাজকে দক্ষ জনশক্তিতে রুপান্তর করার লক্ষ্যে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান, উদ্ধুদ্ধকরণ, আত্মকর্মসংস্থান, উদ্যোক্তা সৃষ্টি এবং ন্যাশনাল সার্ভিস কমসূচিসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন গ্রহন করে যাচ্ছে। এর আলোকে ওই সাড়ে ২৬ লাখের বেশি যুবককে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। একই সঙে¦গ সারাদেশে প্রশিক্ষণণোত্তর আত্মকর্মসংস্থানের জন্য মোট ৬ লাখ ৪৬ হাজার ৮৫৫ জনকে ৯৭৫ কোটি ৪ লাখ ৩৪ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা হয়েছে।

তিনি জানান, জাতীয় উন্নয়নে যুবগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার ২০০৯-১০ অর্থবছর হতে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এ কর্মসূচির আওতায় যুবদের ২ বছরের অস্থায়ী কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়। দেশের ৩৭ জেলার ১২৮টি উপজেলায় এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হয়েছে বা হচ্ছে।