২০ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও কমেছে সিএসইতে

ডিএসইতে লেনদেন বাড়লেও কমেছে সিএসইতে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ গত ৩০ জুন ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পাস হয়েছে জাতীয় সংসদে। বাজেটে শেয়ারবাজার উন্নয়নে বেশ কিছু প্রস্তাবও পাস হয়েছে। তবে বাজেট পাসের দিন থেকে পতনে রয়েছে দেশের শেয়ারবাজার। পতনের এই প্রবণতা বুধবারও অব্যাহত ছিল শেয়ারবাজারে। তবে আগের তুলনায় দর অনেক কমে যাওয়ায় তালিকাভুক্ত বিমা কোম্পানির শেয়ারের দর অনেক বেশি বেড়েছে। ঢাকার বাজারে লেনদেন বাড়লেও কমেছে অপর বাজার চট্টগ্রামে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, আগের দিনের পতনের ধারাবাহিকতায় দিনটিতে উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। একইসঙ্গে কমেছে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন আগের কার্যদিবস থেকে কিছুটা বেড়েছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৩৭২ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ২৩৩ ও ১ হাজার ৯০৯ পয়েন্টে।

সূচক কমলেও ডিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন ২৫ কোটি টাকা বেড়েছে। ৫০৭ কোটি ৪৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৮২ কোটি টাকার।

ডিএসইতে ৩৫৩টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১২৬টির বা ৩৬ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। শেয়ার ও ইউনিট দর কমেছে ১৭৭টির বা ৫০ শতাংশের এবং ৫০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর লেনদেন শেষে অপরিবর্তিত রয়েছে।

ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের। এদিন কোম্পানিটির ১৫ কোটি ১৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা রানার অটোমোবাইলের ১৪ কোটি ৫০ লাখ টাকার এবং ১২ কোটি ২৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে আসে ইউনাইটেড পাওয়ার। সার্বিক লেনদেনে উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে : সিঙ্গার, মুন্নু সিরামিক, ন্যাশনাল পলিমার, ন্যাশনাল টিউব, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল, স্কয়ার ফার্মার এবং এস্কয়্যার নিট কম্পোজিট।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৪৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৪৬৩ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৬৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৯৭টির, কমেছে ১৩৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দর। ৩৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।