১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খুবি ক্যাম্পাসে আনন্দ উৎসব ॥ আন্তর্জাতিক র‌্যাঙ্কিংয়ে স্থান

  • অমল সাহা

বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠিত গবেষণা প্রতিষ্ঠান নিয়ে স্পেনের সিগমো ল্যাব ও যুক্তরাষ্ট্রের স্কপাস পরিচালিত জরিপে আন্তর্জাতিক র‌্যাঙ্কিংয়ে প্রথম এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে খুলনা বিশ্ববিদ্যায়ের (খুবি) সামগ্রিক অবস্থান ৭২১। এর মধ্যে সামাজিক প্রভাব ক্যাটাগরিতে অবস্থান প্রথম এক হাজারের মধ্যে ২৪২, গবেষণায় ৪৩২ এবং উদ্ভাবনীতে ৪৪৯ তম স্থানে। এছাড়া ওই তালিকায় স্থান পাওয়া বাংলাদেশের ১৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে উদ্ভাবনী ক্যাটাগরিতে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান প্রথম, গবেষণায় দ্বিতীয় এবং সামাজিক প্রভাব ক্যাটাগরিতে ৬ষ্ঠ। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক র‌্যাঙ্কিংয়ে স্থান করে নেয়ায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে আনন্দ উৎসব উযাপন করা হয়েছে।

বিশ্বদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলেই খুশি। গত বুধবার তারা আনন্দ উৎসবে মেতেছিলেন। ওই দিন সকালে ক্যাম্পাসে আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনের সামনে থেকে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামানের নেতৃত্বে শোভাযাত্রা বের হয়ে হয়ে হাদী চত্বর ও কটকা স্মৃতিস্তম্ভ হয়ে হাদী চত্বরে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ, ডিনবৃন্দ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত), ডিসিপিন প্রধান, বিভাগীয় প্রধান এবং শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।

শোভাযাত্রা শেষে সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, দেশে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার মানোন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সদিচ্ছা, সরকারের অবিরাম সহায়তা ও ইউজিসির ঐকান্তিক প্রচেষ্টা এই অর্জনে মুখ্য ভূমিকা রেখেছে। এ জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীসহ সংশিষ্ট সকলের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

একই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের গবেষণাকর্মে আন্তরিকতা ও নিরন্তর প্রচেষ্টা এবং শিক্ষার্থীদের একাগ্রতা, অনুশীলন সাফল্যের এ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এনে দিয়েছে। তিনি অর্জিত এ সাফল্য সুসংহত করে সামনে আরও এগিয়ে যাওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সবার প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ, ডিনদের মধ্যে প্রফেসর ড. ফিরোজ আহমদ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস, কোয়ালিটি এ্যাসুরেন্স সেলের (আইকিউএসি) পরিচালক প্রফেসর ড. মোঃ সারওয়ার জাহান। সঞ্চালনা করেন সহকারী ছাত্রবিষয়ক পরিচালক মোহাম্মদ রকিবুল হাসান সিদ্দিক।

তালিকায় থাকা বাংলাদেশের অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি), বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, খুলনা ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং এ্যান্ড টেকনোলজি ও মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি।