২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার পর  স্বামীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ ॥ নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার কাশিপুরের ভোলাইল আদর্শনগর এলাকায় স্ত্রী পলি আক্তার (২৮)কে কুপিয়ে হত্যার পর বিষপানে স্বামী জামাল হোসেন বাদল (৩৫) আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার শেষ রাতে এ ঘটনাটি ঘটেছে। তাদের দুজনের বাড়ি পটুয়াখালী জেলার মীর্জাগঞ্জ থানার ময়দাশ্রীনগর গ্রামে। এটি দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে ছিল। পুলিশ বলছে, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে পরিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

পুলিশ ও নিহতের আত্মীয়-স্বজনরা জানায়, জামাল হোসেন বাদল ও পোশাক শ্রমিক স্ত্রী পলি আক্তার ফতুল্লার ভোলাইল এলাকার মোশারফ মিয়ার বাড়িতে থাকত। পারিবারিক কলহের জেরে মঙ্গলবার শেষ রাতে স্বামী জামাল হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রী পলি আক্তারকে বটি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে এবং লাঠি দিয়ে বেদম পেটায়। স্ত্রী নিন্তেজ হয়ে পড়লে জামাল নিজে বিষপান করে। এই দৃশ্য দেখে পলির আগের সংসারের নয় বছর বয়সী ছেলে ইমাম। ইমাম দরজা খুলে দৌড়ে পাশের ঘরে মামা মামীর কাছে গিয়ে ঘটনাটি জানায়।

তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে পলিকে রক্তাক্ত অবস্থায় এবং জামালের মুখে ফেনা বের হওয়া অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে দু'জনকেই নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। ওই হাসপাতালে ডাক্তার পলি আক্তাকে মৃত ঘোষণা করেন এবং জামালকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ নেয়ার পর ডাক্তার তাকেও মৃত ঘোষণা করেন। নিহত পলি আক্তার ফতুল্লার বিসিক শিল্পনগরীর ফকির এ্যাপারেলসের শ্রমিক ও জামাল হোসেন শহরের চাষাড়ায় চা বিক্রেতা ছিল। তারা সম্পর্কে মামাতো ফুফাতো ভাই বোন। নিহত পলির ছোট ভাই মাঈনুল ইসলাম জানান, তার বড় বোন পলির আগে বিয়ে হয়েছিল। সেই সংসারে নয় বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। আগের স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে মামাতো ভাই জামালকে বিয়ে করে।

তারা ফতুল্লার ভোলাইল এলাকায় মোশারফ হোসেন মিয়ার টিনশেডের ভাড়াটিয়া বাসায় বসবাস করে। মঙ্গলবার শেষ রাতে তাদের রুমে দেখতে পান তার বোন পলি রক্তাক্ত অবস্থায় বিছানায় পড়ে রয়েছে। আর বোন জামাই জামাল হোসেনের মুখ দিয়ে ফেনা বের হচ্ছে। পরে তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তারা মারা যান।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী জামাল হোসেন বাদল স্ত্রী পলি আক্তারকে হত্যা করে। পরে স্বামী জামাল হোসেন বিষপানে আত্মহত্যা করে। নিহত পলি আক্তারের লাশের ময়নাতদন্তে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ও স্বামী জামাল হোসেনের লাশের ময়নাতদন্ত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সম্পন্ন হবে। তিনি আরো জানান, এ বিষয়ে নিহত পলির ভাই মাইনুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার দুপুরে একটি হত্যা ও একটি ইউডি মামলা দায়ের করেছে।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া