২০ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ২৪ মাস ধরে পাচ্ছে না ভাতা

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ২৪ মাস ধরে পাচ্ছে না ভাতা

সংবাদদাতা, পীরগঞ্জ, ঠাকুরগাঁও ॥ পীরগঞ্জ উপজেলার জগথা মুক্তিযোদ্ধা মহল্লার যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আনোয়ার হোসেন এর স্ত্রী আম্বিয়া বেগম ২৪ মাস ধরে স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা পাচ্ছে না। হোটেল শ্রমিক হিসেবে ১৫০ টাকা দিন হাজিরায় কাজ করছে। বয়সের ভারে ও অর্থের অভাবে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তার স্বামী যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে প্রতি মাসে ৩০ হাজার টাকা সম্মানী ভাতা উত্তোলন করতেন। তার স্বামীর মৃত্যুর পর একটি কু-চক্রী মহল তার স্বামীর সম্মানী ভাতা আম্বিয়া যেন উত্তোলন করতে না পারে সে জন্য নানা অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। কেউ বা ভুয়া তালাক নামা দাখিল করে প্রশাসনকে বিভ্রান্ত করছে।

এছাড়া যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেনের প্রথম স্ত্রী (মৃত) আনোয়ারা বেগম এর ছেলে-মেয়ে তার পিতার সম্মানী ভাতা দাবী করে বিভিন্ন দপ্তরে আম্বিয়া বেগমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। সম্প্রতি আম্বিয়া বেগম একটি ভুয়া তালাকের বিরুদ্ধে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন। ইউ.এন.ও’র নির্দেশে সাব-রেজিষ্ট্রার আব্দুস সালাম ভুয়া তালাক নামাটি সরেজমিন তদন্ত করলে ভুয়া প্রমাণিত হয়। ভুয়া তালাক প্রস্তুতকারী পীরগঞ্জ পৌরসভা ২ ও ৩নং ওয়ার্ড নিকাহ্ ও তালাক রেজিষ্ট্রার আবু এহসান এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যে ইউ.এন.ও. সাব রেজিষ্ট্রারকে নির্দেশ দেয়। তার পরেও আম্বিয়া বেগমের বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্র চলছে। এলাকার জয়িতা ও মানবাধিকার কর্মী নাহিদ পারভীন রিপা আম্বিয়া বেগমকে সার্বিক সহযোগীতা করছেন। স্বামীর মুত্যুর ২৪ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনও পর্যন্ত স্বামীর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা পাচ্ছে না আম্বিয়া বেগম। এই ব্যাপারে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

নির্বাচিত সংবাদ