১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মগার ‘চালাকি’ গোলে ব্রাদার্সের প্রতিশোধ!

 মগার ‘চালাকি’ গোলে ব্রাদার্সের প্রতিশোধ!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তার পুরো নাম জেমস জোসেফ সাইদ। ডাকনাম মগা। অথচ চেহারা-সুরুত দেখে কিন্তু তাকে মোটেও ‘মগা’ বলে মনে হয় না। ৩৬ বছর বয়সী সুদানি এই ফরোয়ার্ড ঢাকার ফুটবলে মোটেও অচেনা কোন নাম নন। ২০১০-১১ মৌসুমে মুক্তিযোদ্ধা এবং ২০১৬ মৌসুমে মেহামেডানে লিগ খেলে করেছিলেন যথাক্রমে ৯ এবং ৮ গোল। সুদান এবং দক্ষিণ সুদান জাতীয় দলের হয়ে খেলে করেছেন যথাক্রমে ৫ এবং ৬ গোল। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে সেই মগার দারুণ এক ‘চালাকি’ গোলে কি না তার দল দারুণ এক জয় কুড়িয়ে নিয়েছে! ২-১ গোলে হারিয়েছে নোফেল স্পোর্টিং ক্লাবকে। এই জয়ে প্রতিশোধও নিল ব্রাদার্স। আগের মোকাবেলায় তারা নোফেলের কাছে হেরেছিল ২-০ গোলে।

ম্যাচের তখন ৮০ মিনিট। খেলার স্কোরলাইন ১-১ চলছে। নোফেল-ব্রাদার্স দু’দলই খেলছে সমানতালে, আক্রমণ শাণিয়ে। দু’দলই গোল করার জন্য মরিয়া। কেনা দু’দলই পয়েন্ট টেবিলের তলানির দল। যে জিতবে, অবনমিত হবার জোরালো সম্ভাবনাকে আপাতত কিছুটা ঠেকিয়ে রাখা যাবে। ফলে জেতার ও গোল করার উত্তেজনায় টগবগ করে ফুটছে মাঠের ২২ ফুটবলারই। নোফেলের গোলরক্ষক সাইফুল ইসলাম খান হয়তো একটু বেশিই উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন। নইলে নিজের গোলসীমানা ছেড়ে একেবারে ডি-বক্সের মাথায় এসে দাঁড়িয়ে থাকবেন কেন।

ব্যাপারটা চোখ এড়ায়নি ব্রাদার্সের অধিনায়ক মগার। সুযোগটা নিলেন তিনি। গোলপোস্ট থেকে ৩৫ গজ দূর থেকে বল পেয়েই আর দেরি করলেন না, ডান পায়ের জোরালো দূরপাল্লার উড়ন্ত শট নিলেন। ততক্ষণে বিপদ টের পেয়ে সাইফুল পড়িমড়ি করে পেছনে ফিরে ভোঁ-দৌড় দিয়ে পোস্টের দিকে। কিন্তু শেষরক্ষা করতে পারলেন না। ততক্ষণে বল তার মাথার ওপর দিয়ে আশ্রয় নিয়েছে জালে, গো-ও-ল! দুভার্গ্য, গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি মাথায় নিয়ে গ্যালারিতে তখন মগার এই অসাধারণ চাতুর্যপূর্ণ গোলটি চাক্ষুস করার মতো তেমন কোন দর্শকই নেই! তবে প্রেসবক্সে উপস্থিত সাংবাদিকরা তখন গোলের সাক্ষী হতে পেরে যথেষ্ট রোমাঞ্চিত।

তারা দ্রুতই একমত হলেন, চলতি লিগের সেরা গোলগুলোর মধ্যে মগার গোলটিও থাকবে। ব্রাদার্সের অপর গোলটি মান্নাফ রাব্বির (১৯ মিনিটে)। নোফেলের একমাত্র গোলটি জমির উদ্দিনের (৫০ মিনিটে)।

মগার এই গোলেই হারের বিদায়ঘণ্টা বেজে যায় নোফেলের। শুধু তাই নয়, তার এই গোল রেলিগেশন লড়াইয়ে টেনে এনেছে নোফেল এবং রহমতগঞ্জকেও। খুব একটা স্বস্তিতে নেই মোহামেডানও।

১৯ ম্যাচে ৪ জয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাদার্স পয়েন্ট টেবিলে একধাপ ওপরে উঠে এখন একাদশ স্থানে। পেছনে ফেলে দিল রহমতগঞ্জকে। সমান ম্যাচে একাদশ হারে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাদার্সের ঠিক ওপরেই দশম স্থানে আছে নোফেল (১৩ দলের মধ্যে)।

* নোয়াখালীতে বিজেএমসিকে হারালো মুক্তিযোদ্ধা : একইদিনে নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত অপর ম্যাচে টিম বিজেএমসিকে হারায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। ম্যাচের ৮১ মিনিটে জাপানি ফরোয়ার্ড ইউসুকে কাতো মুক্তিযোদ্ধার হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন। দু’দলের আগের মোকাবেলাতেও ২-০ গোলে জিতেছিল মুক্তিযোদ্ধা।

১৯ ম্যাচে ৫ জয়ে ২১ পয়েন্ট নিয়ে আগের অষ্টম স্থানেই আছে মুক্তি। ২০ ম্যাচে ১৪ হারে মাত্র ৮ পয়েন্ট নিয়ে আগের মতোই তলানিতে আছে রেলিগেশন প্রায় নিশ্চিত হয়ে যাওয়া বিজেএমসি।

* ময়মনসিংহে বৃষ্টিতে স্থগিত আরামবাগ-বসুন্ধরা ম্যাচ : ময়মনসিংহের রফিকউদ্দিন ভুঁইয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বসুন্ধরা কিংস এবং আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের ম্যাচটি ৮ মিনিট চলার পর তুমুল বৃষ্টিতে মাঠ খেলার অযোগ্য হয়ে পড়ায় স্থগিত করা হয়েছে। ম্যাচটির বাকি ৮২ মিনিট আবার পরে অনুষ্ঠিত হবে। তবে কবে হবে, সেই তারিখ জানাতে পারেনি বাফুফে।

এই মাত্রা পাওয়া