১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পোস্তগোলায় উচ্ছেদ অভিযানে দেশী অস্ত্র নিয়ে হামলা

  • নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ আহত ৬ ॥ আটক তিনজনকে দন্ড দিয়ে জেলে প্রেরণ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিআইডব্লিউটিএর উচ্ছেদ অভিযানে দেশী অস্ত্র নিয়ে হামলা চালানো হয়েছে। এতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ ছয়জন মারাত্মক আহত হয়েছেন। এই তুলকালাম ঘটনা ঘটিয়েছে অবৈধ দখলদাররা। ওরা ছয়জনকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ ঘটনায় তিন হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে তাদের তিন মাসের কারাদন্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। হামলাকরীদের দুই হোতা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেলেও তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বিআইডব্লিউটিএ। বৃহস্পতিবার পোস্তগোলা ব্রিজের পশ্চিম পাশে শ্মশানঘাটে উচ্ছেদ অভিযানকালে এ ঘটনা ঘটে। অবশ্য বুড়িগঙ্গার দুই তীর অবৈধ দখলমুক্ত করার উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ করতে পারেনি ভূমিদস্যু নদী দখলদাররা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, বেলা সাড়ে নয়টায় অভিযান শুরুর আগেই স্থানীয় প্রভাবশালী ইব্রাহিম আহমেদ ওরফে রিপন ও তার ভাই ইকবাল আহমেদ বাপ্পি শতাধিক সমর্থক নিয়ে শ্মশানঘাট এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় তাদের হাতে রড, লাঠিসোটা ও দেশী অস্ত্র দেখা যায়। অভিযান শুরুর পরপরই দুর্বৃত্তরা বিআইডব্লিউটিএ কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের ওপর চড়াও হয়। বাগবিত-ার একপর্যায়ে শুরু হয় হামলা। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান ও বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক একেএম আরিফসহ ৬ বিআইডব্লিউটিএ কর্মকর্তা আহত হন। প্রথমাবস্থায় পুলিশ দুর্বৃত্তদের হামলা ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ ঘটনায় হামলাকারী দুই হোতা ইব্রাহিম আহমেদ রিপন ও ইউনুস আহমেদ পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে রিপনের ভাই ইকবাল আহমেদ বাপ্পি, আবুল বাশার মোল্লা ও রনজিত সরকারকে আটক করে পুলিশ। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করে কারাগারে পাঠায়। পলাতক দুজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বিআইডব্লিউটিএ।