১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে শিক্ষার্থী ও সচেতন নাগরিক সমাজের মানববন্ধন শেষে তারা এ স্মারকলিপি দেন।

মানববন্ধনে বিভিন্ন হল ও অনুষদের প্রায় পাঁচ শ’র বেশি শিক্ষার্থী কর্মসূচীতে অংশ নেন। এতে ছাত্রলীগের ঢাবি শাখার সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক তাহসান আহমেদ রাসেল, শামসুন্নাহার হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জেসমিন শান্তা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি নিয়ে গণভবনে যান তারা। মানববন্ধনে সনজিত বলেন, আমরা চাই ধর্ষকের শাস্তি হোক মৃত্যুদন্ড। আর শুধু মৃত্যুদন্ড নয়, আমরা চাই প্রকাশ্যে সেই মৃত্যুদন্ড যেন কার্যকর করা হয় যাতে অন্য সকল অপরাধীরা সতর্ক হয়। ধর্ষণের মামলাগুলো যেন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের আওতায় এনে ৩০ দিনের মধ্যে যেন নিষ্পত্তি করা হয়। এ ব্যাপারে দেশের আইনপ্রণেতারা যেন সংসদে কথা বলেন, আমি এই আহ্বান জানাচ্ছি। এর আগে সকালে সাড়ে ১১টায় রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে বিশেষ ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে এক মাসের মধ্যে ধর্ষককে প্রকাশ্যে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড দেয়ার জোর দাবিতে আরেকটি মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। এতে ডাকসু ও হল সংসদসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

সেখানে শিক্ষার্থীরা ‘ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শান্তি প্রকাশ্যে মৃত্যুদন্ড চাই’, ‘পরবর্তী ধর্ষিতা আমি হবার আগে, আমার সুরক্ষা রাষ্ট্রকে বুঝিয়ে দিতে হবে’; ‘শিশুকামীদের ফাঁসি চাই, মৃত্যুদন্ড চাই’; ‘বিকৃত মানুষরূপী জানোয়ারমুক্ত সমাজ দাবি নয়, অধিকার’; ‘নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সময়ের দাবি’ ইত্যাদি লেখা ফেস্টুন প্রদর্শন করেন।

এই মাত্রা পাওয়া