১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিটিতে যাচ্ছেন আলভেজ!

 সিটিতে যাচ্ছেন আলভেজ!
  • কোপার সেরা একাদশে ঠাঁই হয়নি মেসির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নেইমারকে বাদ দিয়ে কোপা আমেরিকায় ৩৬ বছর বয়সী ‘বুড়ো’ দানি আলভেজকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেয় ব্রাজিল। সিদ্ধান্ত যে সঠিক ছিল তা প্রমাণ করেছেন পিএসজির এই রাইটব্যাক।

পুরো আসরে দুর্দান্ত খেলে ব্রাজিলকে চ্যাম্পিয়ন করাতে রেখেছেন অগ্রণী ভূমিকা। পুরস্কারস্বরূপ হয়েছেন টুর্নামেন্টের সেরা ফুটবলার। দারুণ এই নৈপুণ্যের পর আলভেজকে পেতে চেষ্টা করছে ইংলিশ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। দলটির কোচ পেপ গার্ডিওলার আগ্রহের কারণেই নাকি ইতিহাদে আসতে পারেন আলভেজ। এর আগে গার্ডিওলার অধীনে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সিলোনায় দুর্দান্ত খেলেছিলেন ব্রাজিল অধিনায়ক।

এদিকে কোপা আমেকিরার পর্দা নামার পর আসরের সেরা একাদশ ঘোষণা করেছে আয়োজকরা। এই একাদশে ঠাঁই হয়নি আর্জেন্টাইন অধিনায়ক ও বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসির। একাদশে টুর্নামেন্টের শিরোপা জয়ী ব্রাজিলের পাঁচজন, পেরুর দুইজন ছাড়াও আছেন আর্জেন্টিনা, কলম্বিয়া, উরুগুয়ে ও চিলির একজন করে খেলোয়াড়। কনমেবল-এর অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোর কোচদের বাছাই করা খেলোয়াড়রাই সেরা একাদশে সুযোগ পেয়ে থাকেন। পেরুকে ফাইনালে ৩-১ গোলে হারিয়ে নবমবারের মতো কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছে সেলেসাওরা। আর তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলিকে ২-১ গোলে হারিয়ে আর্জেন্টিনা হয়েছে তৃতীয়।

স্থান নির্ধারণী ম্যাচের পর রেফারিং নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে পদক বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হননি ক্ষুব্ধ মেসি। অভিজ্ঞ চিলিয়ান মিডফিল্ডার গ্যারি মেডেলের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে লালকার্ড দেখে মাঠের বাইরে চলে যেতে হয়েছিল মেসিকে। পরবর্তীতে দক্ষিণ আমেরিকান সকার কনফেডারেশনের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে মেসির অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। মূলত বাজে পারফর্মেন্সের সঙ্গে খারাপ আচরণের কারণে সুযোগ পাননি মেসি। এর আগে ২০১৫ ও ২০১৬ কোপা আমেরিকার সেরা একাদশে সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি। ওই দুই আসরেই চিলির কাছে ফাইনালে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল আর্জেন্টিনা।