১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাখাইনে বানানো ২৫০ ঘর হস্তান্তর করল ভারত

রাখাইনে বানানো ২৫০ ঘর হস্তান্তর করল ভারত

অনলা্ইন ডেস্ক ॥ রোহিঙ্গাদের জন্য রাখাইনে বানানো আড়াইশ ঘর মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারত।

ভারতীয় একজন কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, রোহিঙ্গা প্রতাবাসনের বিষয়টি এগিয়ে নিতেই তাদের এ উদ্যোগ।

নির্যাতনের মুখে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়ে আছে প্রায় দুই বছর ধরে। তাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তি করলেও তার বাস্তবায়ন হয়নি।

কক্সবাজারে শরণার্থী ক্যাম্পে দুর্দশার মধ্যে দিন কাটলেও রোহিঙ্গারা ফিরতে চাইছে না, কারণ তাদের ধারণা, ফিরে গেলে আবারও তাদের নিপীড়নের শিকার হতে হবে।

সেজন্য জাতিসংঘের মত বাংলাদেশও মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ফেরার অনুকূল পরিবেশ তৈরি ওপর জোর দিয়ে আসছে।

ভারতীয় ওই কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ফেরার পরিবেশ তৈরি করতেই তারা আড়াই কোটি ডলারের উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়েছে, যার অংশ হিসেবে সেখানে বাড়ি তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে।

উত্তর রাখাইনের শোয়ে জার, কেইন চং টং এবং নান্ট থার টং গ্রামে বানিয়ে দেওয়া ওই ২৫০টি বাড়ি চলতি সপ্তাহে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেন ভারতের রাষ্ট্রদূত সৌরভ কুমার।

ভারত কেবল হিন্দু রোহিঙ্গাদের জন্য বাড়িগুলো বানিয়ে দিয়েছে বলে কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে খবর এলেও মিয়ানমার সরকার তা অস্বীকার করেছে। তারা বলছে, হিন্দুদের পাশাপাশি মুসলমান রোহিঙ্গারাও সেখানে আশ্রয় পাবে।

ভারতীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, তাদের দেওয়া সহযোগিতার টাকায় রাখাইনে স্কুল ও বাজার নির্মাণের মত ২১টি প্রকল্পের একটি প্রস্তাবিত তালিকাও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ দিয়েছে।

তবে মানবাধিকার সংস্থাগুলো বলে আসছে, রাখাইনে নিপীড়ন বন্ধ না হলে এবং মানবাধিকার পরিস্থিতির উন্নতি না হলে এ ধরনের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে তেমন কোনো সুফল পাওয়া যাবে না।